রবিবার ২৩, জানুয়ারী ২০২২
EN

আইপি টিভি সংবাদ ও অনুষ্ঠান সম্প্রচার করলে ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী

সরকার কিছু কিছু আইপি টিভির অনুমোদন দিলেও তারা সংবাদ প্রচার ও ক্যাবলের মাধ্যমে সম্প্রচার করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

সরকার কিছু কিছু আইপি টিভির অনুমোদন দিলেও তারা সংবাদ প্রচার ও ক্যাবলের মাধ্যমে সম্প্রচার করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে বেসরকারি টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা জানান মন্ত্রী।

এ ছাড়া লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে মোবাইল অপারেটররা ওটিটি প্লাটফর্মে কোনো অনুষ্ঠান প্রচার করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ড. হাছান মাহমুদ।

দুপুরে সচিবালয়ে তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন অ্যাটকোর নেতারা। বৈঠকে বিজ্ঞাপন ছাড়া বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচারে সরকারের কঠোর অবস্থানকে সাধুবাদ জানানো হয় অ্যাটকোর পক্ষ থেকে। এর পাশাপাশি তথ্যমন্ত্রীর কাছে কিছু দাবিও তুলে ধরা হয়।

পরে অ্যাটকোর সিনিয়র সহসভাপতি ইকবাল সোবহান চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পর এখন প্রায় তিন ডজনের মতো টেলিভিশন চ্যানেল সম্প্রচার করছে। এখানে নতুন করে আইপি টিভির অনুমোদন দেওয়ার প্রয়োজন আছে কি না…। আইপি টিভি যেন ব্যবসা, সংবাদ সম্প্রচার ও অনুষ্ঠান সম্প্রচারের ক্ষেত্রে যেন প্রচলিত চলমান টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর বিকল্প হতে না পারে সেজন্য আমরা তাঁকে (তথ্যমন্ত্রী) অনুরোধ করেছি।’

‘অবৈধভাবে ওটিটির মাধ্যমে মোবাইল অপারেটররা যেটা করছেন সেটা অবৈধ। এটাকে বন্ধ করার জন্য আমরা দাবি জানিয়েছি’, যোগ করেন অ্যাটকোর নেতা।  

এসব বিষয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে প্রয়োজনীর ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে যেসব মোবাইল কোম্পানি আছে, তাঁরা লাইসেন্স না নিয়েই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম পরিচালনা করছে। সেখান থেকে উপার্জন করছে, কনটেন্ট বানাচ্ছে, যেগুলো অনলাইনে প্রচার করছে। এটি তাদের লাইসেন্সের শর্তভঙ্গ।

এটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, তারা যদি এটি করে থাকেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, ‘আইপি টিভি কিন্তু কোনোভাবেই সংবাদ প্রচার করতে পারবে না এবং ক্যাবলের মাধ্যমে প্রচার করতে পারবে না।’

এখন পর্যন্ত ১৪টি আইপি টিভির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, পরবর্তীতেও যাচাই-বাছাই করে অনুমোদন দেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

অন্যদের মধ্যে অ্যাটকোর সহসভাপতি আরিফ হাসান, পরিচালক আহমেদ জোবায়ের, আব্দুল হক, কাজী জাহেদুল হাসান, আশফাক উদ্দীন এবং সদস্য নাসির উদ্দীন বৈঠকে অংশ নেন।

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *