বৃহস্পতিবার ৩০, জুন ২০২২
EN

আল-কায়দা ও বিএনপি-জামায়াতের বক্তব্য একই সূত্রে গাঁথা: হাছান মাহমুদ

আল-কায়দা ও বিএনপি – জামায়াতের বক্তব্য একই সূত্রে গাঁথা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। রবিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সম্মিলিম মুক্তিযোদ্ধা ফ্রন্ট আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন

আল-কায়দা ও বিএনপি – জামায়াতের বক্তব্য একই সূত্রে গাঁথা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। রবিবার  দুপুরে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সম্মিলিম মুক্তিযোদ্ধা ফ্রন্ট আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। ২১ শে আগষ্ট গ্রেনেট হামলার মামলা তরান্বিত করার দাবিসহ ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলায় খালেদা জিয়ার সম্পৃক্ততা প্রমাণে তাকে গ্রেফতারের দাবিতে এই মানববন্ধন করা হয়। হাছান মাহমুদ বলেন, আল-কায়দা প্রধান আয়মান আল-জাওয়াহিরি গতকাল গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, বাংলাদেশকে বর্তমান সরকার কারাগারে পরিণত করেছে। সাম্প্রতিক সময় ১৯ দলের নেতৃবৃন্দরাও আল-কায়দার মত একই সুরে কথা বলে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বিএনপি- জামায়াত দেশের স্বার্থ রক্ষা করছেনা। তারা পাকিস্তানের স্বার্থ রক্ষা করছে। তাদের এ ষরযন্ত্র রুখে দিতে হবে। বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে বিদেশীরাও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষরযন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে সাবেক বন ও পরিবেশমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে যে ভুল করছেন তা সংশোধনের জন্য মধ্যবর্তী নির্বাচন দেয়া হবেনা। আপনাদের ভুলের মাশুল আপনাদেরকেই দিতে হবে। বিএনপি চেয়ারপারসনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকাকালে সন্ত্রাসীদের অভয়রণ্য ও অস্ত্র চোরা চালানের রুট হিসেবে বাংলাদেশকে ব্যবহার করেছিল এবং পার্শবর্তী দেশসমূহকে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টিতে ভূমিকা রেখেছিল। সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধ ফ্রন্টের চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল হক সবুজ, সংগঠনের মহাসচিব মাহবুব আলম চৌধুরী প্রমুখ। [b]ঢাকা, এমআর, ১৬ ফেব্রুয়ারি (টাইমনিউজবিডি.কম) // কে বি [/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *