মঙ্গলবার ১৬, অগাস্ট ২০২২
EN

ইতিহাসের এই দিনে

আজকের ঘটনা কাল অতীত। প্রত্যেকটি অতীত সময়ের স্রোতে একসময় হয়ে উঠে ইতিহাস। পৃথিবীর বয়স যতোই বাড়ে ইতিহাস ততোই সমৃদ্ধ হয়। এই সমৃদ্ধ ইতিহাসের প্রতিটি ঘটনার প্রতি মানুষের আগ্রহ চিরাচরিত। ইতিহাসের প্রতিটি দিন তাই ভীষণ গুরুত্ব পায় সকলের কাছে। পাঠকদের আগ্রহকে গুরুত্ব দিয়ে সংযোজন করেছে নতুন আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিনে’। আজ বুধবার (৩০ মার্চ, ২০২২) ১৬ চৈত্র, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২৬ শাবান ১৪৪৩ হিজরি। ইতিহাসে চোখ বুলিয়ে দেখে নেব এই দিনে বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ ঘটে যাওয়া ঘটনা।

ঘটনাবলী:

১১৮০- আব্বাসীয় খেলাফতের পতন যুগে আবুল আব্বাস আহমদ নাসেরের বাগদাদের খেলাফত লাভ।

১২৮২- সিসিলি থেকে ফরাসিদের বহিষ্কার।

১৮১২- কলকাতায় এথেনিয়াম থিয়েটার নামে রঙ্গমঞ্চ খোলা হয়।

১৮৬৭- রাশিয়ার কাছ থেকে আমেরিকার আলাস্কা খরিদ।

১৯৩০- চীনে বামপন্থি চীনা সাহিত্যিক সংঘ প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৭১- শিক্ষাবিদ জ্যোতির্ময় গুহ ঠাকুরতা শহীদ হন।

১৯৭৬- ইসরাইল/প্যালেস্টাইন এলাকায় প্রথম ভূমি দিবস পালিত।

১৯৭৯- ব্রিটিশ এমপি এ্যারি নীভ গাড়িবোমা হামলায় নিহত।

১৯৮১- যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট রনাল্ড রেগান গুলিবিদ্ধ হন।

১৯৯২- সত্যজিৎ রায় অস্কার পুরস্কার ‘মাস্টার অব ফিল্ম মেকার’ লাভ করেন।

১৯৯৬- বিএনপি সরকারের প্রথম সাংবিধানিক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের মধ্য দিয়ে পদত্যাগ।

২০০৬- যুক্তরাজ্যে টেরোরিজন অ্যাক্ট - ২০০৬ আইন হিসেবে গৃহীত হয়।

২০০৯- ১২ জন সশস্ত্র লোক পাকিস্তানের লাহোরে অবস্থিত মানাওয়ান পুলিশ একাডেমি আক্রমণ করে।

জন্মদিন:

১৭৪৬- ফ্রান্সিস্কো গোয়া, স্প্যানিশ চিত্রকর।

১৮৪৪- পল ভের্লেন, ফরাসি কবি।

১৮৫৩- ভিনসেন্ট ভ্যান গখ ওলন্দাজ চিত্রশিল্পী।

১৮৭০- বসুমতীর সম্পাদক ও লেখক সুরেশচন্দ্র সমাজপতি।

১৮৭৪- নিকোলাই রদেস্কু, রোমানিয়ান সেনা কর্মকর্তা ও রাজনীতিবিদ।

১৮৯১- যুক্তরাষ্ট্রের প্রকৌশলী ও যন্ত্র নির্মাতা আর্থার উইলিয়াম সিডনি হ্যাংরিটন জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯৯- শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, বাঙালি লেখক ও চিত্রনাট্যকার।

১৯০৮- দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার এ সম্মানিত প্রখ্যাত ভারতীয় অভিনেত্রী দেবিকা রাণী।

১৯৭৯- নোরা জোন্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত জ্যাজ্‌ সংগীতশিল্পী, পিয়ানো বাদক এবং অভিনেত্রী।

১৯৮৬- সার্জিও র‌্যামোস, স্প্যানিশ ফুটবল খেলোয়াড়।

মৃত্যুবার্ষিকী:

১৬৬৩- মীর জুমলা, মোগল সেনাপতি।

মীর জুমলা (১৫৯১ - ১৬৬৩) তৎকালীন পূর্বাঞ্চলীয় ভারতের বাংলার (বঙ্গ) নামকরা সুবাদার ছিলেন। তিনি মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেবের প্রতিনিধি ছিলেন।

বাংলার সুবাহদার। জন্মসূত্রে তিনি ছিলেন ইরানি এবং প্রথমে তাঁর নাম ছিল মুহম্মদ সাঈদ। মুগল সম্রাটের কাছ থেকে তিনি মুয়াজ্জম খান, খান-ই-খানান, সিপাহ সালার এবং ইয়ার-ই-ওয়াফাদারের মতো বিভিন্ন উপাধি লাভ করেছিলেন। তবে মীরজুমলা নামেই তিনি ইতিহাসে সমধিক পরিচিত।

ইস্পাহানের আর্দিস্তানে ১৫৯১ খ্রিস্টাব্দের দিকে তাঁর জন্ম হয়। তিনি ছিলেন এক দরিদ্র তেল-ব্যবসায়ীর পুত্র। বাল্যকালে মীরজুমলা কিছুটা পড়তে, লিখতে এবং অঙ্ক কষতে শিখেছিলেন, যার ফলে তিনি হীরক খনির জন্য বিখ্যাত গোলকুন্ডার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক হীরক ব্যবসায়ীর অধীনে কেরানির চাকরি লাভ করতে সক্ষম হয়েছিলেন। পরবর্তীকালে তিনি অন্য একজন ব্যবসায়ীর অধীনে চাকরি নিয়ে ভারতে এসেছিলেন।

তিনি অবশ্য নিজেই হীরার ব্যবসা শুরু করেন এবং ঝুঁকিপূর্ণ সামুদ্রিক বাণিজ্যে লিপ্ত হন। ক্রমে ক্রমে বহু জাহাজের মালিক হয়ে তিনি এক খ্যাতিমান ব্যবসায়ী রূপে প্রতিষ্ঠা লাভ করেন।

মীরজুমলা গোলকুন্ডার সুলতানের অধীনে চাকরি গ্রহণ করেন এবং রাজ্যের উজির বা প্রধানমন্ত্রীর পদে উন্নীত হন। দাক্ষিণাত্যের মুগল সুবাহদার শাহজাদা আওরঙ্গজেব তাঁর উন্নতির সহায়ক হন এবং সম্রাট শাহজাহান তাঁর নিরাপত্তা বিধান করেন। সম্রাট তাঁকে মুয়াজ্জম খান উপাধি প্রদান করে সম্মানিত করেন এবং তাঁর পদমর্যাদা ৬০০০ জাট ও ৬০০০ সাওয়ারে উন্নীত এবং তাঁকে দীউয়ান-ই-কুল বা প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করেন।

সম্রাট আওরঙ্গজেবের অধীনে মীরজুমলা ঢাকায় পৌঁছার অল্পদিন পরই বাংলার সুবাহদার হিসেবে তাঁর নিয়োগের রাজকীয় ফরমান লাভ করেন ১৬৬০ খিস্টাব্দে।

১৯৪৮- ইরানের অন্যতম শ্রেষ্ঠ জ্ঞানতাপস এবং সংগ্রামী আলেম আয়াতুল্লাহিল উজমা সাইয়্যেদ হোসেইন তাবাতায়ী বুরোজার্দি মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৫৭- দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদার বাংলা ভাষার রূপকথার প্রখ্যাত রচয়িতা ও সংগ্রাহক।

১৯৬৫- সতীনাথ ভাদুড়ী প্রথিতযশা বাঙালি সাহিত্যিক।

১৯৭১- এ. কে. এম. সামসুল হক খান জেলা প্রশাসক -কুমিল্লা জেলা।

২০০২- আনন্দ বক্সী প্রখ্যাত ভারতীয় কবি,গীতিকার ও সুরকার।

২০০৫- ফ্রেড কোরমাতসু, জাপানী বংশদ্ভূত মার্কিন অ্যাক্টিভিস্ট।

২০১৩- ড্যানিয়েল হফম্যান, মার্কিন কবি ও শিক্ষাবিদ।

দিবস:

বিশ্ব চিকিৎসক দিবস।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *