মঙ্গলবার ১৬, অগাস্ট ২০২২
EN

ইতিহাসের এই দিনে

আজকের ঘটনা কাল অতীত। প্রত্যেকটি অতীত সময়ের স্রোতে একসময় হয়ে উঠে ইতিহাস। পৃথিবীর বয়স যতোই বাড়ে ইতিহাস ততোই সমৃদ্ধ হয়। এই সমৃদ্ধ ইতিহাসের প্রতিটি ঘটনার প্রতি মানুষের আগ্রহ চিরাচরিত। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই সেখানে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ। ইতিহাসের প্রতিটি দিন তাই ভীষণ গুরুত্ব পায় সকলের কাছে। পাঠকদের আগ্রহকে গুরুত্ব দিয়ে সংযোজন করেছে নতুন আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিনে’। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) ১৫ বৈশাখ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ। ২৬ রমজান ১৪৪৩ হিজরি। ইতিহাসে চোখ বুলিয়ে দেখে নেব এই দিনে বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ ঘটে যাওয়া ঘটনা।

ঘটনাবলী:

১৫২৬ মুঘল সম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা জহির উদ্দীন মোহাম্মাদ বাবর সিংহাসনে আরোহণ করেন।
১৫৫৫ জার্মানির অগসবার্গ শহরের নামে সেখানে কংগ্রেস গঠিত হয়।
১৭০১ ব্রিটেনের জন মরিস মোগল সম্রাট আওরঙ্গজেবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।
১৭৭০ ক্যাপটেন কুক নিউ সাউথ ওয়েলসে পদার্পণ করেন।
১৭৮৯ ফ্লেচার ক্রিশ্চিয়ানের নেতৃত্বে ব্রিটিশ জাহাজ বাউন্টিতে নাবিক বিদ্রোহ সংঘটিত হয়।
১৯১৯ লীগ অব নেশনস প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৯২০ আজারবাইজানকে সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত করা হয়।
১৯২০ পোল্যান্ড ও রাশিয়া যুদ্ধ ঘোষণা করে।
১৯৫২ জাপান সার্বভৌমত্ব ফিরে পায় এবং গণতান্ত্রিক জাপান প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৯৬৫ মার্কিন সরকার যুক্তরাষ্ট্রের জনস্বার্থ রক্ষার অজুহাত দেখিয়ে ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্রের ওপর সামরিক হামলা চালায়।
১৯৬৯ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের পদ থেকে চালর্স দ্য গলের পদত্যাগ।
১৯৯২ রোহিঙ্গা শরণার্থী প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে প্রথম চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
১৯৯৫ বাংলাদেশ সরকার হুমায়ুন আজাদের নারী বইটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে।
২০০১ ডেনিশ টিটো পৃথিবীর সর্বপ্রথম মহাকাশ পর্যটকের মর্যাদা লাভ করেন।
২০০৪ মার্কিন একটি গবেষণা সংস্থা সার্স ভাইরাসের ওষুধ আবিষ্কার করেন ।

জন্মদিন:

০০৩২ ওঠো, তিনি ছিলেন রোমান সম্রাট।
১৪৪২ চতুর্থ এডওয়ার্ড, তিনি ছিলেন ইংল্যান্ড রাজা।
১৭১২ ফরাসী দার্শনিক জাঁ জ্যাক রুশোর জন্ম।
১৭৫৮ জেমস মনরো, তিনি ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পঞ্চম রাষ্ট্রপতি।
১৭৯৫ চার্লস স্টুর্ট, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার আবিষ্কারক।
১৮৩৮ টবিয়াস আসের, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ডাচ আইনজীবী ও পণ্ডিত।
১৮৬৯ দিনে ফ্রান্সিস মেরি হককিন, তিনি ছিলেন একজন নিউজিল্যান্ডের চিত্রশিল্পী।
১৮৮৯ আন্টোনিও ডে অলিভেরা সালাজার, তিনি ছিলেন পর্তুগিজ অর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদ ও ১০০তম প্রধানমন্ত্রী।
১৯০০ ইয়ান হেন্ডরিখ ওর্ট, তিনি ছিলেন একজন ওলন্দাজ জ্যোতির্বিদ।
১৯০৬ কুর্ট গ্যোডেল, তিনি ছিলেন একজন মার্কিন যুক্তিবিদ, গণিতবিদ।
১৯০৮ জন জ্যাক হেনরি ওয়েব ফিঙ্গলটন, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার, সাংবাদিক ও ধারাভাষ্যকার।
১৯২৪ কেনেথ কাউন্ডা, তিনি ছিলেন জাম্বিয়ার শিক্ষাব্রতী ও রাজনীতিবিদ ও প্রথম রাষ্ট্রপতি।
১৯৩০ আল্ফ ভ্যালেন্টাইন, তিনি ছিলেন বিখ্যাত ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার।
১৯৩৭ সাদ্দাম হুসাইন, তিনি ছিলেন ইরাকের সাবেক রাষ্ট্রপতি। সাদ্দাম হোসেন আবদুল মাজিদ আল তিকরিতি (২৮ এপ্রিল ১৯৩৭- ৩০ ডিসেম্বর ২০০৬) ছিলেন ইরাকের সাবেক রাষ্ট্রপতি। তিনি ১৬ জুলাই ১৯৭৯ থেকে ৯ এপ্রিল ২০০৩ সাল পর্যন্ত ইরাকের রাষ্ট্রপতি ছিলেন।
১৯৪১ কার্ল ব্যারি শার্পলেস, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আমেরিকান রসায়নবিদ।

১৯৪৭ হুমায়ুন আজাদ (২৮ এপ্রিল ১৯৪৭ - ১২ আগস্ট ২০০৪ খ্রিষ্টাব্দ) একজন বাংলাদেশি কবি, ঔপন্যাসিক, ভাষাবিজ্ঞানী, সমালোচক, রাজনীতিক ভাষ্যকার, কিশোরসাহিত্যিক, গবেষক, এবং অধ্যাপক ছিলেন। তিনি বাংলাদেশের অন্যতম প্রথাবিরোধী এবং বহুমাত্রিক লেখক যিনি ধর্ম, মৌলবাদ, প্রতিষ্ঠান ও সংস্কারবিরোধিতা, যৌনতা, নারীবাদ ও রাজনীতি বিষয়ে তার বক্তব্যের জন্য ১৯৮০-এর দর্শক থেকে পাঠকগোষ্ঠীর দৃষ্টি আর্কষণ করতে সক্ষম হয়েছিলেন। হুমায়ুন আজাদের ৭টি কাব্যগ্রন্থ, ১২টি উপন্যাস ও ২২টি সমালোচনা গ্রন্থ, ৭টি ভাষাবিজ্ঞানবিষয়ক, ৮টি কিশোরসাহিত্য ও অন্যান্য প্রবন্ধসংকলন মিলিয়ে ৬০টিরও অধিক গ্রন্থ তার জীবদ্দশায় এবং মৃত্যু পরবর্তী সময়ে প্রকাশিত হয়। ১৯৯২ সালে তার নারীবাদী গবেষণা-সংকলনমূলক গ্রন্থ নারী প্রকাশের পর বিতর্কের সৃষ্টি করে এবং ১৯৯৫ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত সাড়ে চার বছর ধরে বইটি বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ ছিল। এটি তার বহুল আলোচিত গবেষণামূলক কাজ হিসাবেও স্বীকৃত।

এছাড়াও তার পাক সার জমিন সাদ বাদ উপন্যাসটি পাঠকমহলে বিতর্কের সৃষ্টি করেছিল। তার রচিত প্রবচন সংকলন ১৯৯২ সালে হুমায়ুন আজাদের প্রবচনগুচ্ছ নামে প্রকাশিত হয়। তাকে ১৯৮৬ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার এবং ২০১২ সালে সামগ্রিক সাহিত্যকর্ম এবং ভাষাবিজ্ঞানে বিশেষ অবদানের জন্য মরণোত্তর একুশে পদক প্রদান করা হয়। ২০০৩ সালে তার রচিত কিশোরসাহিত্য ফুলের গন্ধে ঘুম আসে না (১৯৮৫) এবং আব্বুকে মনে পড়ে (১৯৯২) জাপানি ভাষায় অনূদিত হয়েছিলো।

হুমায়ুন আজাদ প্রথাগত ধ্যানধারা সচেতনভাবে পরিহার করতেন। তার সাহিত্যের বৈশিষ্ট্য পল্লীপ্রেম, নর-নারীরপ্রেম, প্রগতিবাদিতা ও ধর্মনিরপেক্ষতা, সামরিক শাসন ও একনায়কতন্ত্রের বিরোধিতা এবং নারীবাদের জন্য পরিচিত। তার ধর্মীয় ও রাজনৈতিক বিশ্বাস এবং ব্যক্তিগত অভীষ্ট তার সাহিত্যকে প্রভাবান্বিত করেছিল। কথাসাহিত্য ও প্রবন্ধের মাধ্যমে তিনি সমাজ, রাজনীতি ও রাষ্ট্রনীতি সম্পর্কে মতামত প্রকাশ করেছিলেন। পাক সার জমিন সাদ বাদ উপন্যাসে মৌলবাদীদের সমালোচনা করার কারণে ২০০৪ সালে তিনি হামলার শিকার হন।

১৯৫৩ রবার্ত অবলানো, তিনি ছিলেন চিলির লেখক ও কবি।
১৯৬০ ওয়াল্টার যেঙ্গা, তিনি ছিলেন সাবেক ইতালিয়ান ফুটবলার ও ম্যানেজার।
১৯৬৮ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার, তিনি ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত ইংরেজ সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ।
১৯৭৪ পেনেলোপে ক্রুজ সানচেজ, তিনি ছিলেন স্প্যানিশ অভিনেত্রী ও প্রযোজক।
১৯৮২ কোয়েল মল্লিক, তিনি ভারতীয় বাংলার একজন বিখ্যাত অভিনেত্রী।
১৯৮৮ হুয়ান ম্যানুয়েল মাতা গার্সিয়া, তিনি স্প্যানিশ ফুটবলার।

মৃত্যুবার্ষিকী:

১৭৪০ প্রথম বাজিরাও, তিনি ছিলেন ভারতীয় সেনাপতি।
১৮১৩ মিখাইল কুটুযোভ, তিনি ছিলেন রাশিয়ান ফিল্ড মার্শাল।
১৮৫৩ লুডভিগ টিয়েক, তিনি ছিলেন জার্মান লেখক ও কবি।
১৯৩৬ মিসরের বাদশাহ ফুয়াদের (প্রথম) ।
১৯৪৫ বেনিতো মুসোলিনি, তিনি ছিলেন দ্বিতীয় মহাযুদ্ধ কালে ইতালির সর্বাধিনায়ক।
১৯৫৪ লিওন জউহাউক্স, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ফরাসি ইউনিয়ন নেতা।
১৯৭০ এড বেগ্লেয়, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা।
১৯৭৮ মোহাম্মদ দাউদ খান, তিনি ছিলেন আফগান কমান্ডার, রাজনীতিবিদ প্রথম রাষ্ট্রপতি।
১৯৯৯ আলফ রামসে, তিনি ছিলেন ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।
১৯৯৯ আর্থার লিওনার্ড শলো, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আমেরিকান পদার্থবিদ।
২০১২ মাটিল্ডে কামুস, তিনি ছিলেন স্প্যানিশ কবি।

দিবস:

জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *