বুধবার ১, ফেব্রুয়ারি ২০২৩
EN

ইভিএম প্রকল্প বাদ দেওয়া নিয়ে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের জন্য ২ লাখ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কিনতে নির্বাচন কমিশনের পাঠানো প্রকল্পটি পরিকল্পনা কমিশন থেকে বাদ দেওয়ার কারণ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকার মানুষের জন্য অতি প্রয়োজনীয় প্রকল্পগুলোকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ‘জেলা প্রশাসক সম্মেলন-২০২৩’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আজকের পত্রিকায় দেখলাম আমাদের বিরোধী দলের একজন বলে ফেলেছেন- ইভিএমে ৮ হাজার কোটি টাকা লাগবে কাজেই সেটা পরিকল্পনা কমিশন থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে সেজন্য বলছে বাংলাদেশ আর্থিক সংকটে।

সরকার প্রধান বলেন, আর্থিক সংকট অবশ্যই সারা বিশ্বব্যাপী আছে, আমাদেরও আছে। কিন্তু এমন পর্যায়ে নাই যে আমরা চলতে পারব না। এই খরচটা এখন এই মুহূর্তে, আমাদের অগ্রাধিকারটা আমাদের তো বিবেচনা করতে হবে। আমাদের কাছে অগ্রাধিকার কি আমাদের কাছে অগ্রাধিকার হচ্ছে মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত রাখা, মানুষের চিকিৎসা সেবাটা নিশ্চিত রাখা, মানুষের কল্যাণটা আগে দেখা, সেখানেই যত টাকা লাগুক, আবার কৃষিটা উৎপাদন যাতে বাড়ে সেজন্য যা খরচ লাগে আমি সেটা করব।

অতি প্রয়োজনীয় প্রকল্পে গুরুত্ব দেওয়ার বিষয়ে বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী উদাহরণ হিসেবে করোনাকালীন সময়ে ভ্যাকসিন সরবরাহের কথা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ভ্যাকসিনের জন্য আমরা পানির মতো টাকা খরচ করেছি। কিন্তু যেগুলো আমাদের এখনই প্রয়োজন নাই সেগুলো আমরা কেন করব। আমাদের তো খরচ করতে হবে আগে মানুষের চাহিদা পূরণ করা, খাদ্য চাহিদা, চিকিৎসা চাহিদা, শিক্ষা চাহিদা এগুলো আগে রক্ষা করা; আমরা সেটাই করে যাচ্ছি।

জনগণের জন্য অতি প্রয়োজনীয় প্রকল্পগুলোকে সরকার অগ্রাধিকার দিচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেখানে সেখানে যত্রতত্র প্রকল্প নেওয়া এটা আমি পছন্দ করি না। প্রকল্পের ক্ষেত্রে যেটা এখনই প্রয়োজন সেটা শুধু আমরা করতে চাই।

তিনি বলেন, ভবিষ্যৎ অর্থনৈতিক মন্দার প্রেক্ষাপটে আমরা কৃচ্ছ সাধনের কথা বলেছি। আমরা আমাদের অপ্রয়োজনীয় খরচ কমিয়ে দিয়েছি সেটার ব্যাপারে আপনারা সচেতন থাকবেন।

করোনা মহামারি এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে সৃষ্ঠ বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী।

এইচএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *