রবিবার ৩, জুলাই ২০২২
EN

ইমরান খান সরকারের সাথে আলোচনায় রাজি!

সরকার যদি জুনে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে, তবে তারা অন্যান্য ইস্যু নিয়ে সরকারের সাথে আলোচনা করতে রাজি আছেন বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) পার্টির চেয়ারম্যান ইমরান খান।

সরকারির সাথে সমঝোতার পর 'আজাদি মার্চ' স্থগিত করেছেন বলে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে, সেটাও তিনি নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দেশে রক্তপাত এড়াতে তিনি অবস্থান করার পরিকল্পনা বাতিল করেছেন। সূত্র : দি নিউজ।

পেশোয়ারে চিফ মিনিস্টার্স হাউসে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ইমরান খান বলেন, 'আমি রক্তপাত এড়াতে বিক্ষোভ শেষ করেছি। আমরা আমাদের নিজস্ব পুলিশ ও বাহিনীর সাথে সঙ্ঘাতে যেতে চাইনি। তবে সরকারের উচিত হবে না, এটাকে আমাদের দুর্বলতা হিসেবে দেখা। সরকার যদি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা না করে তবে আমরা অবশ্যই আরেকটি লং মার্চের জন্য প্রস্তুত হবো।

এর আগে২৫ মে স্বোয়াবি-ইসলামাবাদ মোটরওয়েতে আজাদি মার্চি অংশ নেয়ার সময় মারা যাওয়া পিটিআইয়ের এক কর্মীর পরিবারের সাথে সাক্ষাত করে তাদের সান্ত্বনা দেন।

ইমরান খান বলেন, পিটিআই শান্তিপূর্ণ মিছিল করেছ। কিন্তু সরকার তাতে পাশবিক শক্তি ব্যবহার করেছে। দলের কর্মীরা নিরাপত্তা বাহিনীর শক্তিপ্রয়োগে ক্রুদ্ধ হয়েছিল। ফলে সঙ্ঘাতের আশঙ্কা ছিল। এমনকি তারা সাবেক মন্ত্রী ওমর আইয়ুবকেও ছাড়েনি। তাকে আহত হয়ে হাসপাতালে যেতে হয়েছে।

তিনি বলেন, 'আমদানি করা' এবং তথাকথিত অভিজ্ঞ সরকার আন্তর্জাতিক মুদ্রা সংস্থার কাছে নতি স্বীকার করে তাদের শর্ত গ্রহণ করেছে। ডলারের দাম ২০০ মার্ক ছাড়িয়ে গেছে। তেলের দাম বাড়ানোর কারণে দেশের জনগণের ভোগান্তি বেড়েছে।

ইমরান বলেন, তার সরকার রাশিয়ার সাথে আলোচনা শুরু করেছিল তেল আমদানির জন্য। এতে জনগণেরও ওপর চাপ কমত। রাশিয়ার সাথে চুক্তি করে তেলের ভর্তুকি হ্রাস করতে পেরেছে ভারত। অথচ দেশটি যুক্তরাষ্ট্রের সাথেও সুসম্পর্ক বজায় রেখেছে।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *