মঙ্গলবার ৪, অক্টোবর ২০২২
EN

ইংল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে দিল বাবর-রিজওয়ান ‍

‘দল আমাকে সবসময় সমর্থন দেয় এবং আমার পাশে থাকে।’- খারাপ সময় কাটিয়ে ফেরা বাবর আজম বললেন ম্যাচ শেষে।  সম্প্রতি বাজে ফর্মে থাকায় সমালোচিত পাকিস্তানের অধিনায়ক মনোবল হারাননি সতীর্থরা পাশে ছিলেন বলে। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচসেরা পারফরম্যান্স করে ইংল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে দিলেন তিনি।

৫ উইকেটে ১৯৯ রান করেও পাত্তা পায়নি ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১০ উইকেটে জিতে সাত ম্যাচের সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে পাকিস্তান।

১৯.৩ ওভারে ২০৩ রান করেছে তারা, যা টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানের রেকর্ড উদ্বোধনী জুটি। গত বিশ্বকাপের পর এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ২০ ওভারের ক্রিকেটে ১০ উইকেটে জিতলো পাকিস্তান।

বাবর তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি পেয়েছেন। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান ২০৩ রানের জুটি গড়ার পথে ৮৮ রানে অপরাজিত ছিলেন, ৫১ বলের ইনিংসে ছিল ৫ চার ও ৪ ছয়।

বাবর ৬৬ বলে ১১ চার ও ৫  ছয়ে ১১০ রানে ম্যাচ শেষ করে আসেন শেষ ওভারের তৃতীয় বলে চার মেরে। ৬২ বলে শতকে পৌঁছান অধিনায়ক।

আগে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে শাহনওয়াজ দাহানির কাছে পর পর উইকেট হারান অ্যালেক্স হেলস (২৬) ও ডেভিড মালান (০)। ৪২ রানে ২ উইকেট হারানো ইংল্যান্ডকে ম্যাচে ফেরান ফিলিপ সল্ট ও বেন ডাকেট।

৫৩ রানের জুটি গড়ে সল্ট (৩০) হারিস রউফের শিকার হন। পরের ওভারে তাকে অনুসরণ করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ডাকেট। ৪৩ রান করেন তিনি ২২ বলে ৭ চার মেরে।

হ্যারি ব্রুক ও অধিনায়ক মঈন আলী ঝড় তুলে ইংল্যান্ডকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর এনে দেন। ব্রুক ১৯ বলে ১ চার ও ৩ ছয়ে ৩১ রান করে রউফের দ্বিতীয় শিকার। ৩২ রানে দাহানির ওভারে খুশদিল শাহর হাতে জীবন পাওয়া মঈন শেষ ২ বলে টানা ছক্কা মেরে ষষ্ঠ ফিফটি করেন।

২৩ বলে চারটি করে চার ও ছয়ে ৫৫ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। স্যাম কারান খেলেন ৮ বলে ১০ রানের অপরাজিত ইনিংস।

ধানি ও রউফ পাকিস্তানের পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন।

এন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *