শনিবার ২৯, জানুয়ারী ২০২২
EN

ইংল্যান্ড বাংলাদেশ সফরে আসবে ২০২৩ সালের মার্চে

বাংলাদেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের সিরিজ পিছিয়ে গেছে এক বছর ছয় মাস। এই বছরের সেপ্টেম্বর মাসের বদলে সিরিজটি অনুষ্ঠিত হবে ২০২৩ সালের মার্চে।

বাংলাদেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের সিরিজ পিছিয়ে গেছে এক বছর ছয় মাস। এই বছরের সেপ্টেম্বর মাসের বদলে সিরিজটি অনুষ্ঠিত হবে ২০২৩ সালের মার্চে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) এক যৌথ বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছে সিরিজের নতুন সময়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দুই পক্ষের সম্মতির ভিত্তিতেই নতুন সূচিতে আয়োজন করা হবে সিরিজটি। ২০২৩ সালের মার্চের প্রথম দুই সপ্তাহে হবে দুই দলের সিরিজ। ঢাকা ও চট্টগ্রামে খেলা হবে তিন ওডিআই ও তিন টি-টোয়েন্টি।’

তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টি খেলতে সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল ইংল্যান্ডের। কিন্তু ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সূচির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় স্থগিত করা হয় সিরিজ। আনুষ্ঠানিক ভাবে সিরিজ পেছানোর কারণ নিয়ে ইসিবি কিছু বলেনি।

বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের সিরিজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ২০ সেপ্টেম্বর। আর এই বছরের আইপিলের দ্বিতীয় অংশ শুরু হচ্ছে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে খেলোয়াড়দের একই সময়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে পাঠাতে চায় ইংল্যান্ড। ওই সময়ে বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোতে আইপিএলের ম্যাচ চলবে।

বাংলাদেশ ট্যুর বাতিল করলেও অক্টোবরের ১৪ ও ১৫ তারিখ পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে ইংল্যান্ড।

চলতি বছর মে মাসে করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে স্থগিত করে দেয়া হয় আইপিএল। তিন মাস পর ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে আইপিএলের বাকি থাকা খেলাগুলো।

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানের ৪টি ভেন্যুতে বাকি ৩০ ম্যাচ খেলার পর ১৯ অক্টোবর ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে এবারের আইপিএলের।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *