মঙ্গলবার ৩০, নভেম্বর ২০২১
EN

কেউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে কী করবেন?

বিদ্যুৎ আমাদের জীবনকে অনেক সহজ ও আরামদায়ক করেছে। যতই সহজ হোক না কেন পাশাপাশি এতে রয়েছে কিছু ঝুঁকিও।

বিদ্যুৎ আমাদের জীবনকে অনেক সহজ ও আরামদায়ক করেছে। যতই সহজ হোক না কেন পাশাপাশি এতে রয়েছে কিছু ঝুঁকিও। এজন্য বিদ্যুৎ সংযোগ থাকা জিনিসগুলো সাবধানে ব্যবহার করতে হবে। তাহলে এ সংক্রান্ত দুর্ঘটনা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

মাঝেমধ্যেই আমরা শোনা যায়, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মানুষ মারা যাওয়ার ঘটনা। অথচ একটু সতর্কতাই এ ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলতে পারে। এমনকি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর প্রাথমিক করণীয়গুলো জানলে অনেক ক্ষেত্রে জীবন রক্ষা করা সম্ভব।

গরমের সময়টা বিদ্যুৎ বার বার যায় আসে আর ভোল্টেজ ওঠানামা করে, এসময় দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে। তাছাড়া করোনাভাইরাসের কারণে অঘোষিত লকডাউনে তো সবাই বাসায় আছেন। সতর্কতা দিয়ে যে কোনও খারাপ অবস্থা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।

দেখে নিন কেউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে তাৎক্ষণিকভাবে যা করবেন- বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ব্যক্তিকে বাঁচাতে হবে ঠিকই, তবে এজন্য তাকে স্পর্শ করা যাবে না।

বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ হয়েছে এটা নিশ্চিত হওয়ার আগে কখনোই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ব্যক্তিকে স্পর্শ করবেন না।

কেউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে দ্রুত ওই লাইনের সুইচ বন্ধ করতে হবে। এরপরই কেবল আপনি তাকে স্পর্শ করতে পারবেন।

উলের কাপড়, শুকনো কাঠ অথবা রাবার দিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ব্যক্তিকে আক্রান্ত অবস্থা থেকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে আনতে হবে।

আক্রান্ত ব্যক্তির শ্বাস বন্ধ হয়ে গেলে কৃত্রিম শ্বাস দিতে হবে। শ্বাস স্বাভাবিক রাখতে বুকের ওপর জোরে চাপ দিতে হবে। রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

বৈদ্যুতিক কাজ করার সময় অবশ্যই মেইন সুইচ বন্ধ রাখতে হবে। বৈদ্যুতিক কাজ করার সময় মেইন সুইচের পাশে কাউকে রাখতে হবে যেন কেউ ভুলেও সুইচ না দেয়।

বৈদ্যুতিক কাজের সময় রাবারের জুতা পরতে হবে। বিদ্যুৎ সংযোগ আছে এমন সবকিছু শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

বছরে অন্তত একবার বাড়ির বৈদ্যুতিক লাইন ও সব বৈদ্যুতিক পণ্য পরীক্ষা করে দেখতে হবে।

এএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *