মঙ্গলবার ২৫, জানুয়ারী ২০২২
EN

‘কণ্ঠমেলা’র অডিশন রাউন্ডে ইয়েস কার্ড পেলো দু'শতাধিক প্রতিযোগী

দেশব্যাপী ইসলামী গানের জাতীয় প্রতিযোগিতা ‘কণ্ঠমেলা’র অডিশন রাউন্ড গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ শনিবার সম্পন্ন হয়েছে। দীঘল মিডিয়ার আয়োজনে প্রতিযোগিতার প্রথম পর্ব নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

দেশব্যাপী ইসলামী গানের জাতীয় প্রতিযোগিতা ‘কণ্ঠমেলা’র অডিশন রাউন্ড গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ শনিবার সম্পন্ন হয়েছে। দীঘল মিডিয়ার আয়োজনে প্রতিযোগিতার প্রথম পর্ব নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন প্রখ্যাত গীতিকার ও সুরকার তাফাজ্জল হোসাইন খান, জীবনমূখী গানের শিল্পী ও সাংবাদিক আমিরুল মোমেনীন মানিক, শিল্পী মঈন উদ্দীন বকুল, শিল্পী মনিরুল ইসলাম, ও শিল্পী আজহারুল ইসলাম।

কণ্ঠমেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক মোস্তফা মনোয়ার এর সভাপতিত্বে, দীঘল মিডিয়ার ব্যবস্থাপক আবু সাইদ খানের সঞ্চালনায় এতে সাইফুল ইসলাম সহ আয়োজক প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সারাদেশ থেকে প্রাপ্ত বিপুল সংখ্যক গান যাচাই বাছাই শেষে দুই শতাধিক প্রতিযোগীকে ইয়েস কার্ড প্রদান ও পরবর্তী রাউন্ডে মনোনয়ন দেয়া হয়।

প্রধান বিচারক তাফাজ্জল হোসাইন খান বলেন, কবি নজরুল, ফররুখ ও মতিউর রহমান মল্লিকের হাত ধরে এদেশে ইসলামী গানের যে যাত্রা শুরু হয়েছিল তা যেন বেশ দ্রুততার সাথে পূর্ণতা পেতে চলেছে। কণ্ঠমেলার এ আয়োজনে বিপুল সংখ্যক প্রতিভাবান শিল্পীর অংশ গ্রহণ আমাদের দারুণভাবে আশান্বিত করেছে।

বিচারক আমিরুল মোমেনীন মানিক বলেন, বিশুদ্ধ সংস্কৃতি একটি প্রবহমান ধারার মত। এটিকে আমাদের ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে ধারণ করে অপসংসংস্কৃতিকে রুখে দেয়া সম্ভব। তাই কণ্ঠমেলার এ আয়োজন স্বার্থক বলে মনে করি।

কণ্ঠমেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক মোস্তফা মনোয়ার বলেন, সুস্থ সংস্কৃতিকে তৃনমূল পর্যায়ে পৌছে দিতে কণ্ঠমেলা আমাদের একটি প্রয়াস মাত্র। সংস্কৃতি পিয়াসী বিশাল এ জনগোষ্ঠীর বিনোদনের চাহিদা মেটাতে আমাদের এমন প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। তিনি ইয়েস কার্ড প্রাপ্ত শিল্পীদের অভিনন্দন এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

জেলা ভিত্তিক ইয়েস কার্ড পেলেন যারা-

(ঢাকা) মেহজাবিন, আখি, আফরিদা হোসেন সামারা, আফিয়া, জাওয়াতা আফনান, ইব্রাহিম খান ইয়াহিয়া, দাউদ আল ফয়সাল, মাসুম বিল্লাহ, রাফিয়া ইসলাম, আব্দুর রহমান হিজাজী, আল আমিন, ইমামুল হোসেন, কাজী শোয়াইব হাসান, আফসানা ইসলাম তামান্না, আশা আলমগীর, জারিন আফিয়া, নাওয়ার, আবু রায়হান, মাহমুদুল হাসান মুন, মাইমুনা বিনতে জামাল, মারুফ আল্লাম , নাফিম রহমান জিসান, নিশাতুল ইসলাম, রাফিয়া ইসলাম, সুমনা রহমান, তাকিয়া রশিদ তুবা, সামারাতুন নাঈম মালিহা, আবিদ হাসান, বোখারী শান, সিয়াম আহমেদ, তারিফুল ইসলাম। (খুলনা) আজিজুল হক, আবু রায়হান, সবুজ হোসাইন, ইসতিয়াক, ইসমাইল হোসেন, ইমরান হোসেন,ইমন, ফারিহা তাসনিম সেতু, আবু রায়হান, ঈমাম হোসেন, জহির রায়হান, শাহেদুজ্জামান, মফিজুল ইসলাম ইমন, এস এ সাত্তার ইকবাল। (ফেনী) আবু জাফর রায়হান। (ভোলা) আবু নাঈম মো: আব্দুল্লাহ, আয়েশা সিদ্দিকা এশা, এনায়েত উল্লাহ সাইফি, জুবায়ের বিন ইয়াসিন, সামিয়া আক্তার জেরীন, সায়েদুর রহমান, তাবাসসুম, উম্মে হাবিবা তন্বী। (নোয়াখালী) আবদুল কাদের জেলানী, আহমদ আব্দুল্লাহ নুসাইর, ফাহমিদা রশিদ সুমাইয়া, হাবিবুল্লাহ, জান্নাতুন নাইম কলি, মামুন, মারুফ, নাফিজ আদনান, মুজাহিদুল ইসলাম, সুরাইয়া বিনতে মমিন, সারোয়ার হোসাইন রাকিব, ইমতিয়াজ তুষার শাওন। (সিলেট) বেলাল আহমেদ, বুরহান উদ্দিন মামুন, মোহাম্মদ ইমাদ উদ্দিন , মাহমুদা তাছনিম নিগার, মুবিনুর রহমান সোহান, নাহিদ কিবরিয়া, নাজিয়া আক্তার তিন্নি, রিয়াজুল ইসলাম রাহাত, নাঈম আহমেদ।

(বগুড়া) এ.বি.এম. তৌহিদ কবির, আব্দুল্লাহ আল হিশাম, আবুল বাশার, জোবায়ের আহমেদ, নাবিউল ইসলাম রাহাত, নাজমা আক্তার লিমা, নিয়ামুল হোসাইন, নুসরাত জাহান নিশাত, তানভীর হুসেন। (ঝিনাইদহ) আব্দুল্লাহ আল মামুন, আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, রাসেল আহমেদ। (কুমিল্লা)আব্দুল্লাহ আল শোআইব, আব্দুল্লাহ এ এইচ শোআইব, ইব্রাহিম মজুমদার সিয়াম, সালাউদ্দিন, শরীফুল ইসলাম। (লালমরনরহাট) আবু জাফর আরিফ, আরিফা আঁখি। (নাটোর) আবু ওবায়দা জায়েদ। (মৌলভিবাজার) আবু সালেহ মুঃ নাইম, আমেনা আক্তার সাঞ্জু, ফারাজ হাসান, রুমন আহমেদ। (মাগুড়া) আবুজর গিফারী। (পাবনা) আবুল বাশার, তারেক মাহমুদ। (বরগুনা) আবিদা সানজিদা নিশা। (ময়মনসিংহ) আফিফ আজফার, আফিয়া নাওয়ার জাসরাহ, আহমেদ কায়েস, জাহিদাতুজ জাইমা, জারিন তাসনিম মালিহা, সুজানা ইসলাম সিথি, মুশফিয়া আক্তার তানহা।

(বরিশাল) আহমেদ জুন্নুন ফাহাদ, ফাহমিদা বিনতে ইমরান, ফাহমিদা ইমরান গালিবা, হাফসা রহমান অথৈ, সারামনি, ওবায়দুর রহমান, শাহাদাত হোসাইন, তানজিমা সিদ্দিকা তানহা। (লক্ষীপুর) জাকির হোসাইন, আমির হামজা, কাজী তামিম হাসান, আলী সানী। (নরসিংদী) আমান উললাহ, সাফফাত ইসলাম শিহাব। (পিরোজপুর) আমিনুল ইসলাম, আশফিয়া রশিদ শিফা, নাজমুল ইসলাম, নাজমুল ইসলাম, শাহ্জাহান সাজু। (চাঁদপুর) আমিমুল ইহসান, ইসরাত জাহান, সোহেল রানা, শরিফ হোসাইন। (দিনাজপুর) আমিনুল ইসলাম তামিম, মাশফি, হাফিজুল ইসলাম, হাফিজুল ইসলাম হাফিজ, মিফতাহুল জান্নাত, নাঈম, নূর মুহাম্মাদ, তরিকুল ইসলাম, আহসান মাহবুব জুবায়ের, তৌহিদুজ্জামান বাব। (সিরাজগঞ্জ) অনিকা তাবাসসুম, হাফেজ ইসমসাইল হোসাইন, হাফিজা আক্তার, সামিয়া বিনতে আমির, তরিকুল ইসলাম সোহান (চুয়াডাঙ্গা) আরিফ হাসান, নাজমুস সাকিব, শাহিনুল ইসলাম শাহিন। (রংপুর) আতিকুর রহমান আসিফ, ইমরান হাসান, আবুল হোসাইন, মিফতাহুল জান্নাত ঐশী, তারিকুল ইসলাম, রুহুল আমিন সরকার। (টাঙ্গাইল) ফাইরুজ লাবীবাহ, তাজকিয়া জামান। (বাগেরহাট) ফকির মুস্তাকিম বিল্লাহ, কামরুল ইসলাম , মোহাম্মাদ আলী সরদার, সাইফুল্লাহ। (গাজিপুর) গাজী সালাউদ্দিন বিন আকতারুজ্জামান, কাজী তানভীর আহমেদ, মাহমুদুল হাসান তাসলিম , সাবাতাস নুবা।

(চট্টগ্রাম) হাবিবুর রহমান, মোহাম্মদ ফাইজ, রহিম উদ্দীন, মেহেরুন্নেসা, নাইমুল ইসলাম , রিজাউর রহমান। (পঞ্চগর) হাসান রায়হান। (নীলফামারী) জামিনুর রহমান। (রাজশাহী) জয়নাল আবেদীন, এমজি আযম। (নওগা) জুলকার নাঈন। (যশোর) মাসুম বিল্লাহ , তৌহিদুজ্জামান তৌহিদ। (বি-বাড়িয়া) দেলোয়ার হোসেন। (খাগড়াছড়ি) হাবিবুল বাশার। (কক্সবাজার) শিহাব উদ্দিন, শাফায়েত উল্লাহ, তাসফিয়া আবেদীন লোভা। (ঝালকাঠি) মিসবাহউদ্দিন। (জামালপুর) মনিরুজ্জামান সবুজ, নাবিয়া জান্নাত অথৈ। (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) মনোয়ার হোসাইন, নোমান আলী, আল আমিন। (সুনামগঞ্জ) নাঈম আহমদ, নুসরাত রশীদ নোভা, আলহাসান, তারেক আল হাসান। (ঠাকুরগাঁও) শরিফুল ইসলাম। (গাইবান্ধা) রাইহান হোসাইন, সৈয়দ মো: ইউসুফ নূরী। (পটুয়াখালী) সাইফুল ইসলাম, শাহ মনজুর। (সাতক্ষীরা) শাহরিকা মাহজাবীন, শামসুন্নাহার। বাকী জেলা থেকে যারা ইয়েস কার্ড পেয়েছে-শাহ মো: নাজমুল ইসলাম, সুমন দুরানী, শাহিনুল ইসলাম, নওরিন জাহান, মোজাম্মেল হোসাইন, মাহদী বিন আনাস সিফাত, হাবিবুল এ এইচ মল্লিক, আহসান, আল আদীপ, আছেম মাহফুজ।

উল্লেখ্য ২৫ জুলাই হতে ৭ সেপ্টেম্বর-২০১৮ অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন ও শিল্পীদের অডিও গান পাঠানোর মধ্যদিয়ে এই রাউন্ডের প্রক্রিয়া শেষ হয়।

জেড

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *