মঙ্গলবার ২৫, জানুয়ারী ২০২২
EN

‘ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে জামায়াত’

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা: শফিকুর রহমান বলেছেন, স্বাধীনতার পর থেকে দেশে যথেষ্ট অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে এটা সত্য। তবে এখনো মানুষ স্বাধীনতার প্রকৃত সুফল থেকে বঞ্চিত। আজও মানুষের জান ও মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়নি।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা: শফিকুর রহমান বলেছেন, স্বাধীনতার পর থেকে দেশে যথেষ্ট অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে এটা সত্য। তবে এখনো মানুষ স্বাধীনতার প্রকৃত সুফল থেকে বঞ্চিত। আজও মানুষের জান ও মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়নি। সড়কগুলোর ভঙ্গুর অবস্থা, কোনো তদারকি নেই। সড়কপথে শৃঙ্খলা না থাকায় অসংখ্য বনিআদমকে অস্বাভাবিক মৃত্যুবরণ করতে হচ্ছে। নাগরিকদের অধিকার রক্ষা এবং সড়কপথ ও গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সরকারকে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে।

বুধবার পটুয়াখালী জেলার বাউফলে বাস দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের পরিবারের সার্বিক খোঁজ খবর, আর্থিক সহায়তা ও সহমর্মিতা জানানোর সময় এ কথা বলেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল অ্যাডভোকেট মুয়াজ্জেম হোসেন হেলাল, কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ মুহাম্মাদ শাহাবুদ্দিন, কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ, পটুয়াখালী জেলা আমির অধ্যাপক শাহ আলম, বাউফল উপজেলা আমির মাওলানা রফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মী ও স্থানীয় জামায়াত-শিবির নেতৃবৃন্দ।

ডা: শফিকুর রহমান আরো বলেন, সীমাহীন জুলুম নিপীড়ন উপেক্ষা করে জামায়াতে ইসলামী সামর্থ্য অনুযায়ী আর্ত মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের যেকোনো প্রান্তে সড়ক দুর্ঘটনা, অগ্নিকাণ্ডসহ বিভিন্ন দূর্যোগে ধর্ম-বর্ণ-দল নির্বিশেষে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে সহযোগিতা নিয়ে আমরা আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো ইনশাআল্লাহ।

তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার পরিজন ও আহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং তাদের আরোগ্য কামনা করেন এবং তাদের উপযুক্ত ক্ষতিপুরণ দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় আমিরে জামায়াত নিহত রনজিৎ কবিরাজের বাড়িতে গিয়ে তার স্ত্রী, সন্তান ও ভাইকে নগদ অর্থ, কম্বলসহ শীতের পোষাক ও অন্যান্য সামগ্রী প্রদান করেন। তারপরে বাউফলের কৃতি সন্তান বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ এর বাবা মরহুম অধ্যাপক সিরাজ উদ্দিন খানের কবর জিয়ারত করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *