রবিবার ২, অক্টোবর ২০২২
EN

খায়রুল হত্যার চার্জশিট, প্রধান আসামি কালাম

রাজধানীর সায়েদাবাদ টার্মিনালের বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম মোল্লা হত্যাকাণ্ডের চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। বাস মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কালামকে প্রধান আসামি উল্লেখ করে রোববার দুপুরে মামলার চার্জশিট মুখ্য মহানগর হাকিম

রাজধানীর সায়েদাবাদ টার্মিনালের বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম মোল্লা হত্যাকাণ্ডের চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। বাস মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কালামকে প্রধান আসামি উল্লেখ করে রোববার দুপুরে মামলার চার্জশিট মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে দাখিল করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। চার্জশিট দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ডিবি পুলিশ ইন্সপেক্টর রফিকুল ইসলাম। চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়, বাস টার্মিনালের সভাপতি আবুল কালাম টার্মিনালের একক নিয়ন্ত্রণ, চাঁদাবাজির টাকা ভাগবাটোয়ারাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম মোল্লার সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন। চার্জশিটে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে তিনি টার্মিনালের সাধারণ সম্পাদক খায়রুলকে খুন করার পরিকল্পনা করেন সভাপতি আবুল কালাম। টার্মিনালে একক আধিপত্য বিস্তারের জন্যই ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে খায়রুল মোল্লাকে খুন করিয়েছেন। গত বছরের ৭ নভেম্বর মতিঝিলে বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংকের দ্বিতীয় তলায় সন্ত্রাসীরা খায়রুল মোল্লাকে উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এই ঘটনায় গত ৯ নভেম্বর মতিঝিল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। পরের দিন ১০ নভেম্বর মামলাটি তদন্তভার দেয়া হয় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশকে (ডিবি)। গোয়েন্দা পুলিশ সূত্র জানায়, চার্জশিটে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত হিসেবে ১৬ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে বিভিন্ন সময় ৭ জন আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে মূল পরিকল্পনাকারী সভাপতি কালামসহ আলী আকবর বাবুল ও মুসফিকুল মান্নান বায়ু উচ্চ আদালত থেকে জামিনে রয়েছেন। মামলায় এখন পর্যন্ত পলাতক রয়েছেন ৯ জন। হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয়া ৫ জন সন্ত্রাসী হলেন- তৈয়ব আলী, আলমগীর, সালাউদ্দীন, সুমন এবং আওলাদ। এদের মধ্যে সুমন পলাতক রয়েছেন। এছাড়াও এজাহারভূক্ত আসামী দুর্জয় ও উপরে উল্লেখিত সুমন ব্যতিত বাকি ৫ জন হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম। ওই হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বাস মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কালাম, আলমগীর হোসেন, নাইমুর রহমান দুর্জয়, সালাউদ্দীন, এবিএম আওলাদ হোসেন, আলী আকবর বাবুল এবং মুসফিকুল মান্নান বায়ু। মামলার পলাতক আসামীরা হলেন, তৈয়ব আলী, বাচ্চু মিয়া, গিয়াস উদ্দীন জাফর, সুমন রেজা, সেলিম সারোয়ার, আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, মোক্তার হোসেন নিপা, সাইদুজ্জামান শান্ত এবং রহমত উল্লাহ সেন্টু। [b]ঢাকা, জেইউ, ২৩ মার্চ (টাইমনিউজবিডি.কম) // এআর[/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *