সোমবার ৬, ডিসেম্বর ২০২১
EN

খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)-এর কেন্দ্রীয় কমিটি।

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)-এর কেন্দ্রীয় কমিটি।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক, সাংবাদিক শওকত মাহমুদ ও সদস্য সচিব অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন এক যুক্ত বিবৃতিতে খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে জামিন প্রদান ও বিদেশে সর্বাধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার জোর দাবি জানান।

বিবৃতিতে তারা বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া মিথ্যা মামলায় ফরমায়েশী রায়ে কারাবন্দী। বিভিন্ন জটিল রোগে নিদারুণ অসুস্থ হয়ে আজ তিনি হাসপাতালে শয্যাশায়ী। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া একজন বয়োজ্যেষ্ঠ ও সম্মানিত ব্যক্তি। তিনি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে নিজেকে উৎসর্গ করেছেন। তিনি শুধু ৩ বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীই নন, তিনি বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এর সহধর্মিণী। তিনি দীর্ঘদিন যাবত নানাবিধ জটিল রোগে আক্রান্ত।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এক ফরমায়েশী রায়ে তাকে কারাবন্দী রেখে তার চিকিৎসায় করা হয়েছে চরম অবহেলা। যার ফলশ্রুতিতে তার শারীরিক অবস্থা আজ অত্যন্ত সঙ্কটাপন্ন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণের আবেদন জানানো সত্ত্বেও সরকার আজ মানবিক আচরণ করতে ব্যর্থ হচ্ছে। চিকিৎসকদের পক্ষ থেকেও বারংবার বলা হয়েছে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে। বিদেশে আরো সর্বাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন হাসপাতালে প্রেরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে। কিন্তু সরকার কোন কিছুই কর্ণপাত করছে না।

আমরা বিএসপিপির পক্ষ থেকে বলতে চাই- দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী, সংসদীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে ছিনিমিনি খেলা এদেশের আপামর জনসাধারণ মেনে নিবে না।

আমরা বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পরিবারের আবেদনে সাড়া দিয়ে মানবিক দৃষ্টিভঙ্গিতে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে বিদেশে প্রেরণের সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *