সোমবার ৬, ফেব্রুয়ারি ২০২৩
EN

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ছে। আদালতের দেওয়া সাজা স্থগিতের মেয়াদ শর্তসাপেক্ষে আরও ৬ মাস বাড়ানোর বিষয়ে আজ বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ছে। আদালতের দেওয়া সাজা স্থগিতের মেয়াদ শর্তসাপেক্ষে আরও ৬ মাস বাড়ানোর বিষয়ে আজ বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবর খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে তাঁর ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার এ–সংক্রান্ত আবেদন করেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ আবেদনটির বিষয়ে আইনি মতামত চেয়ে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেয়।

আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বিষয়ে ওই সময় সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত করে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে একটি আবেদন করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আমাদের কাছে এ আবেদনের ওপর আইনি মতামত চেয়ে পাঠিয়েছিল। আমরা তাঁর (খালেদা জিয়া) দণ্ড আগের শর্ত অনুযায়ী আরও ছয় মাস স্থগিতের পক্ষে মত দিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। এখন এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে।

আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত ও সুপারিশ অনুযায়ী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে।

২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে প্রথমে ছয় মাসের জন্য শর্ত সাপেক্ষে মুক্তি পান খালেদা জিয়া। পরে গত সেপ্টেম্বরে তাঁর মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাসের জন্য বাড়ানো হয়। মুক্তিতে থাকার সময় খালেদা জিয়া নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন; এ সময় তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না বলে শর্ত দেওয়া হয়।

‘দ্য কোড অব ক্রিমিনাল প্রসিডিউর’-এর ধারা-৪০১ (১)-এ দেওয়া ক্ষমতাবলে খালেদা জিয়ার দণ্ডাদেশ স্থগিত করা হয়। গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে আরও ছয় মাসের জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ে।

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *