শুক্রবার ৩, ডিসেম্বর ২০২১
EN

গেইলদের হারিয়ে সেমিতে এক পা অস্ট্রেলিয়ার

আগেই বিদায় নেয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিতে এক পা দিয়ে রাখল অস্ট্রেলিয়া। শনিবার সুপার টুয়েলভের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে অজিরা।

আগেই বিদায় নেয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিতে এক পা দিয়ে রাখল অস্ট্রেলিয়া। শনিবার সুপার টুয়েলভের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে অজিরা।

আবুধাবিতে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৫৭ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে অস্ট্রেলিয়া জয়ের বন্দরে পৌঁছায় ২২ বল হাতে রেখে। উইকেট পড়ে মাত্র একটি।

গ্রুপ ওয়ানে পাঁচটি ম্যাচ খেলা সম্পন্ন অস্ট্রেলিয়ার। চার জয় ও এক হারে দলটির পয়েন্ট ৮। চার ম্যাচে চার জয়ে ৮ পয়েন্ট ইংল্যান্ডেরও। রাতের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে পারলে এই গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে সেমিতে পা রাখবে ইংল্যান্ড। রানার্স হিসেবে যাবে অস্ট্রেলিয়া। তবে সাউথ আফ্রিকা জিতলে তখন তিন দলের (ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা) পয়েন্ট হবে সমান ৮। তখন রান রেটের হিসেবে সেমিতে যাবে দুই দল।

লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা উড়ন্ত ছিল। অধিনায়ক ফিঞ্চ শান্ত থাকলেও ওয়ার্নার ছিলেন আগুনমুখো। ধীরে খেলাই যেন কাল হয় অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়কের। দলীয় ৩৩ রানে আকিল হোসেনের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন ১১ বলে ৯ রান করা অ্যারন ফিঞ্চ।

তবে এরপর আর অজিদের ফিরে তাকাতে হয়নি। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অস্ট্রেলিয়াকে জয় পাইয়ে দেন ওয়ার্নার ও মার্শ। স্কোর লেভেলের সময় আউট হন ৩২ বলে পাচ চার ও দুই ছক্কায় ৫৩ রান করা মার্শ। ৫৬ বলে ৯টি চার ও চারটি ছক্কায় ৮৯ রানের দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। গেইলের সাথে লুইসের জুটি আভাস দিচ্ছিল বড় কিছুর। দুই ছক্কায় গেইল চেনাচ্ছিলেন নিজেকে। কিন্তু দলীয় ৩০ রানে ছন্দপতন। থামেন ক্যারিবীয় এই ব্যাটিং দানব। ৯ বলে ১৫ রান করা গেইলকে বোল্ড করেন অজি পেসার কামিন্স। তার বিদায়ের পর ৩৫ রানের মধ্যে আরো দুটি উইকেট হারায় উইন্ডিজ। চতুর্থ ওভারে নিকোলাস পুরান ও রোস্টন চেজকে বিদায় করেন আরেক পেসার জশ হ্যাজলউড।

পুরান ৪ রান করতে পারলেও চেজ পারেননি রানের খাতা খুলতে। এই বিপর্যয় রোধ করেন লুইস-হেটমায়ার জুটি। দলীয় ৭০ রানে বিদায় নেন ওপেনার এভিন লুইস। জাম্পার বলে স্মিথের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি ২৬ বলে ২৯ রান করে। তার ইনিংসে ছিল ৫টি চারের মার।

দলীয় ১০০ ছোঁয়ার আগেই সাজঘরে ফেরেন হেটমায়ার। তিনি হ্যাজলউডের শিকার। ২৮ বলে ২৭ রান করেন হেটমায়ার। শেষের দিকে পোলার্ড, রাসেল ও ব্রাভোর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩১ বলে চারটি চার ও এক ছক্কায় সর্বোচ্চ ৪৪ রান করে স্টার্কের শিকার অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড। সাত বলে দুই ছক্কা ও এক চারে ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন আন্দ্রে রাসেল। ১২ বলে এক ছক্কায় ১০ রান করেন ব্রাভো।

বল হাতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে চারটি উইকেট নেন হ্যাজলউড। এছাড়া মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্স ও অ্যাডাম জাম্পা নেন একটি করে উইকেট।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *