শনিবার ৪, ডিসেম্বর ২০২১
EN

গুগলের অফিস হচ্ছে বাংলাদেশে

বাংলাদেশে চালু হচ্ছে বিশ্বব্যাপী বহুল ব্যবহৃত সার্চ ইঞ্জিন প্রতিষ্ঠান গুগলের অফিস।

বাংলাদেশে চালু হচ্ছে বিশ্বব্যাপী বহুল ব্যবহৃত সার্চ ইঞ্জিন প্রতিষ্ঠান গুগলের অফিস।

শিগগিরই এই ব্যাপারে ঘোষণা আসার কথা রয়েছে। এই ঘোষণা দেবেন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাই।

বাংলাদেশের অফিস পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে বাংলাদেশি তরুণ তানভীর রহমানকে।

এছাড়া গুগল যুক্তরাষ্ট্রের পরিচালক হিসেবেও নিযুক্ত করা হয়েছে তাকে।

তিনি একইসঙ্গে বাংলাদেশ অফিস ও যুক্তরাষ্ট্র অফিসে কাজ করবেন। তাকে শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে তানভীর রহমান বলেন, ‘গুগল বাংলাদেশের পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছি। আমি বাংলাদেশ অফিস ও যুক্তরাষ্ট্রে কাজ করবো।

শিগগিরই আমার নিয়োগের বিষয়টি গুগল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

নতুন এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণের পাশাপাশি আমি তাদের সম্মানিত করতে চাই যারা বছরের পর বছর ধরে আমাকে বিশ্বাস করেছে। মন থেকে সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।’

প্রাতিষ্ঠানিকভাবে নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে কাজ শুরু করবেন তানভীর রহমান।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বহু-দেশীয় আন্তর্জাতিক দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

স্বপ্নবাজ তরুণ তানভীর রহমানের জন্ম বরিশালে। অনেক আগে থেকেই কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে কাজ করে আসছিলেন তিনি। এই তরুণ মাত্র ৩২ বছর বয়সেই পৌঁছে গেছেন অনন্য এক উচ্চতায়।

অনেক কাঠ-খড় পুড়িয়ে অবশেষে সাফল্যের মুখ দেখা তানভীর জাহিদ সবুরের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে এই পদ পেয়েছেন। জীবনে অনেক কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে পৌঁছেছেন এই জায়গায়।

তানভীর বেড়ে উঠেছেন ব্যবসায়ী পরিবারে।পরিবারের সবাই চেয়েছিলেন তিনিও ব্যবসায়ী হবেন।

একেবারেই ভিন্ন পথে হাঁটলেও সবাইকেই খুশি করতে পেরেছেন তিনি। শুরুতে কোডিংয়ের ভালো বই এবং একটি ইন্টারনেট সংযোগই ছিল তার জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ।

একান্ত চেষ্টা আর পরিশ্রমের পর তানভীর একসময় প্রোগ্রামিংয়ের সিঁড়ি বেয়ে বেশ উপরেই উঠে যান।

সহকর্মীদের কাছে তিনি ‘মাস্টারমাইন্ড’হিসেবে পরিচিত পান।সর্বশেষ গুগলে নিয়োগ পেয়ে যেন সবার আস্থাই রেখেছেন এই স্বপ্নবাজ।

এর আগে বাংলাদেশের কান্ট্রি কনসালট্যান্ট হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন কাজী মনিরুল কবীর।

তার সময়েই বাংলাদেশে গুগলের অফিস চালুর কথা শোনা গিয়েছিল। তিনি সিঙ্গাপুর অফিস থেকে গুগলের বাংলাদেশ কার্যক্রম সামলাতেন।

এ ছাড়া কাজী আনওয়ারুস সালাম গুগলের কান্ট্রি ইঞ্জিনিয়ারিং কনসালট্যান্ট হিসেবে কিছুদিন কাজ করেছেন।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *