রবিবার ২৯, মে ২০২২
EN

চট্টগ্রামে ওসির গাড়িতে পেট্রল বোমা নিক্ষেপ

মহানগরীর পাহাড়তলী থানার সাগরিকা রোড এলাকার ওসি আজিুজুর রহমানের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল ও পেট্রোল বোমা ছুঁড়েছে অবরোধকারীরা। এ সময় একজন কনেস্টেবল আহত হয়েছে। পুলিশ পাল্টা গুলি চালিয়ে হামলাকারীদের প্রতিরোধ করে। পুলিশের গুলিতে আহত হয়েছে আরাফাত নামের এক হামলাকারী

[b]চট্টগ্রাম:[/b] মহানগরীর পাহাড়তলী থানার সাগরিকা রোড  এলাকার ওসি আজিুজুর রহমানের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল ও পেট্রোল বোমা ছুঁড়েছে অবরোধকারীরা। এ সময় একজন কনেস্টেবল আহত হয়েছে। পুলিশ পাল্টা গুলি চালিয়ে হামলাকারীদের প্রতিরোধ করে। পুলিশের গুলিতে আহত হয়েছে আরাফাত নামের এক হামলাকারী। মঙ্গলবার রাত সোয়া ৯টায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত পুলিশ কনেস্টেবলের নাম প্রদীপ। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে গুলিবিদ্ধ হামলাকারী আরাফাতকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পাহাড়তলী থানার ওসি আজিুজুর রহমান বলেন, রাত সোয়া ৯টার দিকে সাগরিকা রোডের মোড়ে আমার উপস্থিতিতে দায়িত্বরত পুলিশের ওপর অতর্কিত ককটেল হামলা চালায় ৭/৮ জন সন্ত্রাসী। এ সময় তারা আমার গাড়ি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে। কিন্তু পেট্রোল বোমাটি রাস্তায় পড়ে আগুন ধরে যায়। পুলিশ প্রতিরোধ করলে সন্ত্রাসীরা বেশ কিছু ককটেলের বিস্ফোরন ঘটায়। পুলিশ ৫/৭ রাউন্ড গুলি চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলেও গুলিতে আহত হয়ে আটক হয় হামলাকারী আরাফাত। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে আটক অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের হামলায় কনস্টেবল প্রদীপ সামান্য আহত হয়েছে। জানা গেছে, হরতাল-অবরোধে সাগরিকা রোড এলাকায় যানবাহনে হামলা ও আগুন দেয়ার ঘটনা রোধে সেখানে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়। ওসি’র নেতৃত্বে পুলিশের দুটি টহল টিম রাতে বিশ্বরোড় সাগরিকা এলাকায় টহল দিচ্ছিল। পুলিশি তৎপরতায় যানবাহনে আগুন ও ভাঙচুর করতে না পেরেই হরতাল-অবরোধকারীরা পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে বলে ধারণা উর্দ্ধতন পুলিশ কর্মকর্তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *