শনিবার ৪, ডিসেম্বর ২০২১
EN

ছাত্রের চুল কেটে দেওয়া মাদ্রাসাশিক্ষক কারাগারে

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় মাদ্রাসাশিক্ষক মঞ্জুরুল কবির মঞ্জুকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল (০৯ অক্টোবর) শনিবার বিকেলে তাকে লক্ষ্মীপুর আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৬ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় মাদ্রাসাশিক্ষক মঞ্জুরুল কবির মঞ্জুকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গতকাল (০৯ অক্টোবর) শনিবার বিকেলে তাকে লক্ষ্মীপুর আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে শিক্ষক মঞ্জুকে উপজেলার বামনী ইউনিয়নের কাজিরদিঘীর পাড় এলাকা থেকে পুলিশ আটক করে। রাতেই মাদ্রাসাছাত্র শাহাদাত হোসেনের মা শাহেদা বেগম বাদী হয়ে শিশু নির্যাতন দমন আইনে তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

মঞ্জু হামছাদী কাজিরদিঘীরপাড় আলিম মাদরাসার সহকারী শিক্ষক ও বামনী ইউনিয়ন জামায়াতের আমির।

লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, “মাদ্রাসার দাখিল শ্রেণির বেশ কয়েকজন ছাত্রের চুল লম্বা থাকার কারণে তাদের সতর্ক করা হয়েছিল চুল কেটে আসার জন্য। তবে, তারা চুল না কেটে আসার কারণে যে একজন শিক্ষক আরও কয়েকজন শিক্ষকের সহযোগিতায় ছয়-সাত ছাত্রের চুল জোরপূর্বক কেটে দিয়েছেন বলে একটি বিষয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। জানতে পেরে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিই। সেই সহকারী শিক্ষককে আমরা আমাদের হেফাজতে নিয়ে আসি। এরপর এক ছাত্রের মা বাদী হয়ে শিশু আইনে মামলা করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তদন্ত চলছে। ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত, তদন্ত করে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।”

এমবি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *