রবিবার ২৭, নভেম্বর ২০২২
EN

জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু বেলজিয়ামের

বিশ্বকাপের আগে থেকেই হট ফেভারিট ধরা হচ্ছিল বেলজিয়ামকে। কিন্তু বিশ্বকাপে মঞ্চে মাঠে নেমেই শুরুতে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিলে তারা। দীর্ঘ ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপে ফেরা কানাডা পেনাল্টি পেয়েও মিস করে ফেলে। বেলজিয়াম গোলকিপার থিবো কোর্তোয়ার দুর্দান্ত পেনাল্টি সেভ করে ম্যাচে দলকে কোনো বিপদ হতে দেননি।

পরে প্রথমার্ধের শেষ দিকে মিচি বাতশুয়াইর গোলে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে গিয়েছিল বেলজিয়াম। দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের দ্বিতীয় বিশ্বকাপে খেলা কানাডা সমানে সমানে লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত জালের দেখা পায়নি। ফলে গত রাশিয়া বিশ্বকাপের তৃতীয় হওয়া এডেন হাজার্ড-ডি ব্রুইনেরা নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করল জয় দিয়েই।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দোহার আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়ামে তারকাবহুল বেলজিয়ামের সামনে আনকোরা দল কানাডা শুরুতেই বড় সুযোগ পেয়ে যায়। তবে ১০তম মিনিটে কানাডার আলফোনসো ডেভিসের পেনাল্টি শট গোলপোস্টে দেয়াল হয়ে ঠেকিয়ে দেন কোর্তোয়া। তবুও কানাডা প্রথমার্ধের পুরোটা সময় ধরেই দুই নাম্বারে থাকা দলটিকে বেশ চাপে রাখে।

তবে ৪১ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে টবি অল্ডারউয়েরেল্ডের উড়ন্ত শট বাতসুয়াই প্রথম স্পর্শেই জালের নিশানা খুঁজে নিলে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বেলজিয়াম। যার ফলে এই সমীকরণ নিয়েই বিরতিতে যায় দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধেও কানাডা আক্রমণে গতি বাড়ায়। তবে তাদের একের পর এক আক্রমণ গোলে পরিণত হয়নি। কারণ একটাই, রিয়াল মাদ্রিদের গোলকিপার কোর্তোয়ার অতিমানবীয়তায়। .

ফলে নিজেদের সোনালি দিনের শেষ বিশ্বকাপের শিরোপা উঁচিয়ে ধরার মিশনের শুরুতেই যেন কোনোমতে হাঁফ ছেড়ে বাঁচে ডি ব্রুইনেরা। পুরো ম্যাচে কানাডার ২০টি শটের বিপরীতে মাত্র ৯টি শট নেয় বেলজিয়াম। তবে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল বেলজিয়াম। তারা ম্যাচের ৫৫ শতাংশ সময় বল পায়ে রাখে।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *