বুধবার ৮, ডিসেম্বর ২০২১
EN

ডাক্তার-নার্সরাও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত

রাজধানীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাইরেও ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ভয়াবহ রূপ নেয়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যে এখন মশা আতঙ্ক বিরাজ করছে

রাজধানীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাইরেও ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ভয়াবহ রূপ নেয়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যে এখন মশা আতঙ্ক বিরাজ করছে। ডেঙ্গু রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হচ্ছেন চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীসহ হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা।

ঢাকার ৯টি সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও সাপোর্টিং স্টাফ মিলে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ১৮৫ জন। তাদের মধ্যে এখনো আইসিইউসহ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২০জন।

আর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফ। লোকবল সংকটের ওপর চিকিৎসক আর নার্সদের অসুস্থতার কারণে রোগীর চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

রাজধানীর মুগদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পহেলা জুলাই থেকে এখন পর্যন্ত পনেরো জন চিকিৎসক এবং বাইশ জন নার্স ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত। এবছর এই হাসপাতালের ১৫জন ডাক্তার, ১৪জন নার্স এবং ৬জন সাপোর্টিং স্টাফ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেন, রোগীদের বাড়তি চাপ সামাল দিতে হাসপাতালের করিডোরগুলোতে রাখা হয়েছে রোগী। বেশির ভাগ রোগী মশাড়ি ব্যবহারে আগ্রহী না হওয়ায় হাসপাতাল থেকেই ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকিও রয়েই যাচ্ছে। ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের কাছ থেকে হাসপাতালের কেউ যাতে আক্রান্ত না হয় সে ব্যাপারে বাড়তি সতর্কতা নেয়ার কথা ভাবছে হাসপাতালগুলো।

ঢাকা শিশু হাসপাতালের ৪জনের ২জন এখনো আইসিউতে, মুগদা হাসপাতালের ৩৬জন, বিজিবি হাসপাতালের ১৮জন, বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালের ৪জন, কুর্মিটোলা হাসপাতালের ১৪ জনের ২জন এখনো চিকিৎসাধীন, মিটফোর্ড হাসপাতালের ৬ জনের মধ্যে ভর্তি আছেন ৪জন এবং পুলিশ হাসপাতালের ৫জন আক্রান্ত হয়েছেন ডেঙ্গুতে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ঢাকা মেডিক্যালের ২৫জন ডাক্তার, ২২জন নার্স, ১৫ জন স্টাফ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। এখনো ৫জন ডাক্তার ও ৩ জন নার্স ভর্তি আছেন।

এসএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *