শনিবার ৪, ডিসেম্বর ২০২১
EN

ঢাবিতে ভর্তিযুদ্ধ শুরু আজ

স্নাতকের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে আজ শুক্রবার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তিযুদ্ধ শুরু হচ্ছে। আজ সকাল ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাতটি বিভাগীয় পর্যায়ের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

স্নাতকের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে আজ শুক্রবার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তিযুদ্ধ শুরু হচ্ছে। আজ সকাল ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাতটি বিভাগীয় পর্যায়ের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এবারের ‘ক’ ইউনিটে মোট আবেদনকারীর সংখ্যা এক লাখ ১৭ হাজার ৯৫৭ জন। আর মোট আসন ১৮১৫টি। সেক্ষেত্রে এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৬৪ দশমিক ৯৯ জন।

তবে, এ বছরে সবচেয়ে বেশি প্রতিযোগিতা হবে চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায়। এই ইউনিটে মোট আবেদনকারী ১৫ হাজার ৪৯৬ জন আর আসন ১৩৫টি। আর প্রতি আসনে লড়বে গড়ে ১১৪ দশমিক ৭৯ জন করে।

জানা যায়, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ‘খ’ ইউনিটে মোট আবেদনকারী ৪৭ হাজার ৬৩২ জন, আসনসংখ্যা ২৩৭৮টি, আসনপ্রতি পরীক্ষার্থী ২০ দশমিক ০৩ জন, ‘গ’ ইউনিটে মোট আবেদনকারী ২৭ হাজার ৩৭৪ জন, আসনসংখ্যা ১২৫০টি, প্রতি আসনে লড়বে ২১ দশমিক ৯০ জন, ‘ঘ’ ইউনিটে মোট আবেদনকারী এক লাখ ১৫ হাজার ৮৮১ জন, আসনসংখ্যা ১৫৭০টি, প্রতি আসনে লড়বে ৭৩ দশমিক ৮১ জন।

এর আগে গত বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘এবারের ভর্তি পরীক্ষা দেশের ৮ বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এজন্য পরীক্ষা ঘিরে আমাদের যেসব নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া দরকার সেগুলো এরই মধ্যে সম্পন্ন করেছি। কোথাও কোনো প্রশ্নফাঁস কিংবা জালিয়াতির সুযোগ নেই। আমরা সব জায়গায় গোয়েন্দা নজরদারি বাড়িয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশ আমাদেরকে সব ধরনের নিরাপত্তার বিষয়ে নিশ্চিত করেছে।’

উপাচার্য আরও বলেন, ‘যারা এর আগে ভর্তি জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তি হয়েছে, তাদের আমরা খুঁজে খুঁজে বের করে বহিষ্কার করেছি। দুদিন আগেও দুজনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আর, আট বিভাগের আটটি বিশ্ববিদ্যালয়ের একইভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষাগুলোতেও কোনো ধরনের সমন্বয়হীনতা থাকবে না। ভর্তি পরীক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী রাজশাহী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একসঙ্গে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে।’

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *