শনিবার ৪, ডিসেম্বর ২০২১
EN

দেড় বছর পর হলে ফিরলেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সাথে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান নিয়ে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আবাসিক হলগুলো বন্ধ হয়ে যায়।

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সাথে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান নিয়ে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আবাসিক হলগুলো বন্ধ হয়ে যায়। দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর এবার আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়া হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০টায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি হল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের পৃথকভাবে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের হাতে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার উপহার হিসেবে তুলে দেয়া হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের টিভি রুমে শিক্ষার্থীদের বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদসহ অন্য হলের হল প্রাধ্যক্ষ ও সহকারী প্রাধ্যক্ষরা।

এ সময় ভিসি বলেন, ‘সকল শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই হলে উঠতে হবে। হলে ওঠার ক্ষেত্রে অবৈধ কোনো শিক্ষার্থীকে স্থান দেয়া হবে না। এই বিষয়ে সরকারের নির্দেশনা কঠোরভাবে মানা হবে। আমাদের হলগুলো হবে শিক্ষার্থীবান্ধব। শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে আবাসিক হলগুলোতে পড়াশোনা করবে সে বিষয় আমাদের সুনজর রয়েছে।’

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমদ, প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ড. মো: আলমগীর কবীর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ সামিউল ইসলাম, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে দীর্ঘ দিন পর হলে ফিরতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সাজ্জাদ ভূঁইয়া বলেন, দীর্ঘ ১৯ মাস পর আমরা আমাদের আবাসিক হলে প্রবেশ করতে পারছি। বিষয়টা আমাদের জন্য অবশ্যই আনন্দের। হল কর্তৃপক্ষের সুন্দর ব্যবস্থাপনা আমাদের মুগ্ধ করেছে। আমরা যারা হলে উঠেছি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমান বলেন, করোনা মহামহারীতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর দীর্ঘ ১৯ মাসের মাথায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণকেন্দ্র বিভিন্ন হলগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। আবারো মুখরিত হবে ক্যাম্পাস। শিক্ষার্থীদের পদচারনায় শাবিপ্রবির ৩২০ একর আবারো প্রাণ ফিরে পাবে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ স্নাতকোত্তর, ২৬ অক্টোবর স্নাতক ৪র্থ বর্ষ, ২৭ অক্টোবর ৩য় বর্ষ এবং ২৮ অক্টোবর ২য় বর্ষের শিক্ষার্থীরা হলে প্রবেশ করবেন। সূত্র : ইউএনবি।

এবিএস

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *