বৃহস্পতিবার ৩০, জুন ২০২২
EN

দূর্নীতির কারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের চ্যলেঞ্জ বেড়েছে

সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংকিং খাতে গুরুতর অনিয়ম ও জালিয়াতির ঘটনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাজে চ্যালেঞ্জ বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী। রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক সম্মেলন ২০১৪ উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য এ কথা বলেন তিনি।

সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংকিং খাতে গুরুতর অনিয়ম ও জালিয়াতির ঘটনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাজে চ্যালেঞ্জ বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী। রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক সম্মেলন ২০১৪ উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য এ কথা বলেন তিনি। এস কে সুর বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিবিড় তদারকির ফলে ইতোমধ্যে ব্যাংক খাতের অনেক অনিয়ম উদঘাটিত হয়েছে। তবে ভবিষ্যতে এ ধরনের অনিয়ম প্রতিরোধে আরো সৃজনশীল ও উদ্ভাবনমুখী হতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। সুর বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাত ও অর্থনীতির সার্বিক সূচকগুলো ইতিবাচক ধারায় রয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শক্ত নজরদারির কারণে ইতোমধ্যে ব্যাংকগুলোর ঝুঁকিভিত্তিক মূলধন পর্যাপ্ততা সংক্রান্ত ব্যাসেল-২ নীতিমালার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন হয়েছে। শিগগিরই ব্যাসেল-৩ বাস্তবায়নের হবে বলে জানান তিনি। সুদের হার প্রসঙ্গে ডেপুটি গভর্নর বলেন, শ্রেণীকৃত ঋণের হার গত দু’তিনটি প্রান্তিকে কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী থাকলেও সামনের প্রান্তিকে তা নিম্নমুখী ধারায় থাকবে বলে আশা করা যায়। তিনি জানান, ব্যাংকগুলোর ঋণ ও আমানত প্রবৃদ্ধির হারের মধ্যে অসামঞ্জস্যতা এখন অনেকটাই দূর হয়েছে। ঋণ-আমানত অনুপাত এখন নির্ধারিত সীমার মধ্যেই আছে। কলমানি রেট কমে আসায় ব্যাংকগুলোর তারল্য পরিস্থিতি বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। সম্মেলনে অংশগ্রহনকারীরা দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভবিষ্যৎ কলাকৌশল নির্ধারণের ওপর আলোচনা শেষে মতামত ও পরামর্শ তুলে ধরবেন। এই মতামত/পরামর্শ বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা, পদক্ষেপ ও গাইডলাইন্স প্রণয়ন বা সংশোধন এবং বাস্তবায়নে কাজে লাগানো হবে। [b]ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি (টাইমনিউজবিডি.কম) // এমআর[/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *