সোমবার ২৭, জুন ২০২২
EN

ধর্ষণের মিথ্যা মামলা করায় নারীকে ৫ বছরের কারাদণ্ড

জয়পুরহাট সদর উপজেলার সুন্দরপুর গ্রামে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ধর্ষণের অভিযোগে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় গৃহবধূ লিলিফা বানুকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তিন হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দুই মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

জয়পুরহাট সদর উপজেলার সুন্দরপুর গ্রামে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ধর্ষণের অভিযোগে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় গৃহবধূ লিলিফা বানুকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তিন হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দুই মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার বিকালে জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা জজ) মো. রুস্তম আলী এ রায় দেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২৩ জুন জয়পুরহাট সদর উপজেলার সুন্দরপুর গ্রামের রুহুল আমিনকে আসামি করে একই গ্রামের শাহজাহান আলীর মেয়ে লিলিফা বানু ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। গত কয়েক মাস যাবত এ মামলার শুনানি হয়। শেষে আদালতে মামলার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়।

উল্লেখ্য, পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর উদ্দেশ্যেই এমন মিথ্যা ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

জয়পুরহাট জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল জানান, এ নিয়ে গত ২ মাসে জয়পুরহাটের  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ধর্ষণের তিনটি মিথ্যা মামলা দায়ের করার সত্যতা প্রমাণিত হয়েছে। প্রতিটি মামলার বাদীকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত।

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *