সোমবার ১৫, অগাস্ট ২০২২
EN

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রতি জামায়াত আমিরের শোক

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য ও নওগাঁ পূর্ব সাংগঠনিক জেলার পলিটেকনিক থানা শাখার সেক্রেটারি নাহিদুল ইসলাম ২০ বছর বয়সে এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য ও নওগাঁ সদর উপজেলা শাখার অর্থ সম্পাদক মুহাম্মাদ মতিউর রহমান ১৯ বছর বয়সে উভয়েই এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টার দিকে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তাঁরা সাংগঠনিক প্রোগ্রাম শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। নাহিদুল ইসলামকে ৫ জানুয়ারি সকাল ১১টায় এবং মুহাম্মাদ মতিউর রহমানকে বাদ জোহার বলিহার বাবলাতলীতে জানাযা শেষে সামাজিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য ও নওগাঁ পূর্ব সাংগঠনিক জেলার পলিটেকনিক থানা শাখার সেক্রেটারি নাহিদুল ইসলাম ২০ বছর বয়সে এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য ও নওগাঁ সদর উপজেলা শাখার অর্থ সম্পাদক মুহাম্মাদ মতিউর রহমান ১৯ বছর বয়সে উভয়েই এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টার দিকে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তাঁরা সাংগঠনিক প্রোগ্রাম শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। নাহিদুল ইসলামকে ৫ জানুয়ারি সকাল ১১টায় এবং মুহাম্মাদ মতিউর রহমানকে বাদ জোহার বলিহার বাবলাতলীতে জানাযা শেষে সামাজিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নাহিদুল ইসলাম ও মুহাম্মাদ মতিউর রহমানের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান ০৫ জানুয়ারি ২০২১ এক শোকবাণী প্রদান করেছেন।

শোকবাণীতে তিনি বলেন, নাহিদুল ইসলাম ও মুহাম্মাদ মতিউর রহমান শহিদী কাফেলা বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সদস্য ছিলেন। তাঁরা শিক্ষাঙ্গণে নিজেদের আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি কোমলমতি সহপাঠীদের মা-বাবার চক্ষুশীতলকারী আদর্শ সন্তান, দেশের একজন দায়িত্বশীল ও ইসলামী চরিত্রবান নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নিরলসভাবে প্রচেষ্টা চালিয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় তাঁরা সাংগঠনিক প্রোগ্রাম শেষে বাড়ি ফেরার পথে মহান রবের ডাকে সাড়া দিয়ে দুনিয়া থেকে খুবই অল্প বয়সে চলে গেলেন। তাদের এই মৃত্যু অত্যন্ত হৃদয়বিদারক ও মর্মান্তিক। আল্লাহ পাকের এই অমোঘ সিদ্ধান্ত আমাদেরকে মেনে নিতেই হবে। আমি তাঁদের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি ও সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

শোকবাণীতে তিনি আরো বলেন, তাঁদেরকে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা ক্ষমা ও রহম করুন এবং তাঁদের কবরকে প্রশস্ত করুন। তাঁদের গুনাহখাতাগুলোকে ক্ষমা করে দিয়ে নেকিতে পরিণত করুন। কবর থেকে শুরু করে পরবর্তী প্রত্যেকটি মঞ্জিলকে তাঁদের জন্য সহজ, আরামদায়ক ও কল্যাণময় করে দিন। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাঁদেরকে শহীদ হিসেবে কবুল করুন এবং তাঁদের শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে সবরে জামিল দান করুন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *