মঙ্গলবার ৩০, নভেম্বর ২০২১
EN

নিজেকে ভালো রাখতে কারো সমালোচনা নয়, প্রশংসা করুন!

ঘর থেকে শুরু করুন। যখন বের হচ্ছেন, কেউ আপনাকে দরজা পর্যন্ত এগিয়ে দিচ্ছেন, প্রথমে তাকেই ধন্যবাদ দিন।

উদাসীনতা বাদ দিয়ে নিজেকে ভালো রাখার চেষ্টাটাও করতে হবে। কারণ নিজে ভালো থাকলেই অন্যকে ভালো রাখা যায়। আর এজন্য প্রয়োজনে লাইফস্টাইলে কিছু পরিবর্তনও করতে হবে পারে।

জীবনের সব কিছু বদলে দেওয়ার চিন্তা না করে প্রথমে নিজে কে ১% ১% করে পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন। আর এই পরিবর্তনগুলো ধরে রাখলেই প্রতিটি দিন মানে ধীরে ধীরে পুরো জীবনটাই সুন্দর হবে। যা করতে পারেন:

• নিজের যত্ন নিন। ভালো পোশাক পরুন। সকালে উঠে একটু বাড়তি যত্ন নিয়ে সাজ-পোশাকে তৈরি হলে দেখবেন সারাদিন আপনার মন ভালো থাকবে। সঙ্গে পছন্দের পারফিউম ব্যবহার করুন।

• জানেন তো, হাসিমুখে সবার সঙ্গে কথা বলতে কষ্ট তো হয়ই না, বরং আমাদের দেখতে আরও সুন্দর ও আকষর্ণীয় লাগে। সবার সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলুন। সবাই আপনাকে পছন্দ করবে, আপন করে নেবে আর এই অনুভূতি আপনাকেও ভালো রাখবে

• সমালোচনা নয়, প্রশংসা করুন। কেউ একটা নতুন শাড়ি পরেছে, অথবা কোনো কাজ করে খুব আগ্রহ নিয়ে আপনার মতামত জানতে চেয়েছে। এসময় নিশ্চয় তারা প্রশংসাই আশা করবেন। আপনার প্রশংসাই হয়ত তাকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখাবে।

• কেউ কিছু বলতে চাইলে মন দিয়ে শুনুন। আপনি একজন ভালো শ্রোতা যেমন হবেন আবার তার কথা থেকে হয়ত অনেক কিছু শিখতেও পারবেন

• ধন্যবাদ জানান, ঘর থেকে শুরু করুন। যখন বের হচ্ছেন, কেউ আপনাকে দরজা পর্যন্ত এগিয়ে দিচ্ছেন, প্রথমে তাকেই ধন্যবাদ দিন। সকালের নাস্তাটা আজ ভালো ছিল? যিনি তৈরি করেছেন তার তো একটা ধন্যবাদ প্রাপ্যই। এরপর ড্রাইভার, বাড়ির বা অফিসের দারোয়ান, দোকানদার কিংবা অফিসের সহকর্মী ছোট কোনো কাজেও যে সাহায্য করছে তাকেই ধন্যবাদ দিন।

• একেবারেই ব্যায়াম করা হয় না? অন্তত রাতে কিছুটা সময় গান শুনতে শুনতে হাঁটুন।

• দিন সবার জন্যই সমান সময় নিয়েই আসে, একে সুন্দর করা ও নিজে ভালো থাকা অনেকটাই নির্ভর করে আমাদের ইচ্ছা এবং কাজের ওপর। এটাও মানতে হবে, সব পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না, তবে যেটুকু থাকে, এতটুকু ভালো থাকার আন্তরিক চেষ্টা করুন।

 

এএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *