সোমবার ১৫, অগাস্ট ২০২২
EN

নভেম্বরে রেমিট্যান্স দেড় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন

সদ্য সমাপ্ত নভেম্বরে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ (১.৫৫ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার, গত দেড় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। অথচ করোনা মহামারি মধ্যেও বৃদ্ধি পাওয়া প্রবাসী আয় টানা ছয় মাস ধরে কমছে। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসের দেশে সর্বনিম্ন ১৫০ কোটি ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল।

সদ্য সমাপ্ত নভেম্বরে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ (১.৫৫ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার, গত দেড় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। অথচ করোনা মহামারি মধ্যেও বৃদ্ধি পাওয়া প্রবাসী আয় টানা ছয় মাস ধরে কমছে। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসের দেশে সর্বনিম্ন ১৫০ কোটি ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্যমতে, নভেম্বরে দেশে ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ (১.৫৫ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। যা গত বছরের নভেম্বরের চেয়ে ২৫ শতাংশ বা ৫২ কোটি ৫০ লাখ টাকা কম। গত বছরের নভেম্বরের রেমিট্যান্স এসেছিল ২০৭ কোটি ৮৭ লাখ ডলার।

প্রতিবেদন থেকে আরও জানা গেছে, ২০২১-২২ অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে (জুলাই-নভেম্বর) দেশে রেমিট্যান্স আসে ৮৬০ কোটি ৮৮ লাখ ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৭৩ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা)। যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ২২৮ কোটি ৫২ লাখ বা প্রায় ২১ শতাংশ কম। ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে রেমিট্যান্স আসে ১ হাজার ৮৯ কোটি ৪১ লাখ ডলার। দেশীয় মুদ্রায় যার অংক ছিল ৯২ হাজার ৬০০ কোটি টাকা।

রেমিট্যান্স কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে অর্থনীতিবিদরা বলেন, করোনার বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ায় অবৈধ চ্যানেলগুলোতে ( হুন্ডি) অর্থ লেনদেন বেড়েছে। এছাড়া মহামারিতে যে হারে প্রবাসীরা চাকরি হারিয়েছে সেভাবে বিদেশে নতুন শ্রমশক্তি নিয়োগ হয়নি।

এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *