মঙ্গলবার ২৫, জানুয়ারী ২০২২
EN

নাম না, বল দেখে খেলার চেষ্টা করেছি : জয়

ডিসেম্বরে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক মাহমুদুল হাসান জয়ের। ম্যাচটায় দুই ইনিংস মিলে করেছিলেন মাত্র ৬ রান। অভিষেকটা একেবারেই সাদামাটা হলেও তার উল্টো চিত্র নিউজিল্যান্ড সফরে।

ডিসেম্বরে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক মাহমুদুল হাসান জয়ের। ম্যাচটায় দুই ইনিংস মিলে করেছিলেন মাত্র ৬ রান। অভিষেকটা একেবারেই সাদামাটা হলেও তার উল্টো চিত্র নিউজিল্যান্ড সফরে।

কিউইদের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেই নায়ক বনে গেলেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দল থেকে আসা এই ব্যাটার। কিউইদের বিপক্ষে মাউন্ট মঙ্গানুইতে প্রথম ইনিংসে খেলেছেন ২২৮ বলে ৭৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে ১০৪ রানের জুটি গড়ে কিউই বিশ্বসেরা বোলিং লাইন আপের সামনে খেলেছেন বুক চিতিয়ে।

সোমবার তৃতীয় দিনের খেলা শেষে জানিয়েছেন, ‘নিউজিল্যান্ড দলের পেস বোলিং আক্রমণ বিশ্বসেরা। ওরা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপাজয়ী দল। আমি এক্ষেত্রে আমার স্বাভাবিক খেলাটাই খেলার চেষ্টা করেছি। ওদের বোলারদের নাম দেখে না খেলে বল দেখে খেলার চেষ্টা করেছি।’

৭৮ রান করতে জয় খেলেন ২৮৮টি বল। যা দেশের বাইরে প্রথম ইনিংসে সবচেয়ে বেশি বল খেলার রেকর্ডও। এ ছাড়া নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এক ইনিংসের দুইশর বেশি বল খেলা প্রথম ওপেনার বনে যান জয়।

দীর্ঘক্ষণ ধরে টিকে থাকা নিয়ে জয় বলেছেন, ‘আমার পরিকল্পনা ছিল রানের দিকে না গিয়ে বেশি বেশি বল খেলার। আমি বেশি বল খেলতে পারলে রান এমনিতেই আসবে। আমার সঙ্গী যারা ছিল সাদমান ভাই, শান্ত ভাই, মুমিনুল ভাই… সবাই একই কথা বলেছে। এটাই ছিল উইকেটে শান্ত থাকার কারণ।’ ‘দলের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার কাছ থেকে দারুণ সমর্থক পেয়েছি। আমি যে নতুন দলে এসেছি সেই চাপটা আমি অনুভব করিনি। টিম ম্যানেজমেন্টের সবাই আমাকে সাহায্য করেছে’ যোগ করেন জয়।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *