বুধবার ১, ফেব্রুয়ারি ২০২৩
EN

পুঁজিবাজারে দরপতন

এক কার্যদিবস উত্থানের পর আবার দেশের উভয় শেয়ারবাজারে কমেছে সূচক।বুধবার সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে সূচকের সঙ্গে কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর। একই সঙ্গে কমেছে টাকার পরিমাণে লেনদেনও।

এক কার্যদিবস উত্থানের পর আবার দেশের উভয় শেয়ারবাজারে কমেছে সূচক।বুধবার সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে সূচকের সঙ্গে কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর। একই সঙ্গে কমেছে টাকার পরিমাণে লেনদেনও। বুধবার দিনের শুরুতে মিশ্র প্রবণতা থাকলেও সকাল সাড়ে ১১টার পর থেকে নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়। দিনের বাকি সময় বাজার পুনরুদ্ধার হয়নি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪৬৯৭ পয়েন্টে। ডিএসইতে মোট ২৯০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৬টি, কমেছে ১৪৪টি আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টি কোম্পানির শেয়ারের। টাকার পরিমাণে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৫৪ কোটি ৬৯ লাখ টাকার। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্রড ইনডেক্স বেড়েছিল ১৬ পয়েন্ট। এদিন মোট লেনদেন হয় ৪৬২ কোটি ৮২ লাখ টাকার। ইতোমধ্যে ঘোষিত অধিকাংশ কোম্পানির লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের মনোপুত না হওয়ায় বিনিয়োগকারীদের অনেকে শেয়ার ছেড়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া অনেক বিনিয়োগকারী লভ্যাংশ ঘোষণার পূর্বে শেয়ার দর বাড়লেও বিক্রি করে দেন। এসব কারণে শেয়ার বিক্রির চাপ বেড়ে যাওয়ায় বুধবার মূল্য সূচক কমেছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯২১৭ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট ২১৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৪টির, কমেছে ১১৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কোম্পানির শেয়ারের। টাকার পরিমাণে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার। গতকাল মঙ্গলবার সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৪৩ কোটি ১৮ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। বুধবার সিএসইতে লেনদেন কমেছে ৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। [b]ঢাকা, ৫ মার্চ (টাইমনিউজবিডি.কম) // এমআর[/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *