রবিবার ২৯, মে ২০২২
EN

পুঁজিবাজারে বড় দরপতন:মূলধন কমল চার হাজার কোটি টাকা

শেয়ার বিক্রির অতিরিক্ত চাপে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বড় দরপতন হয়েছে। গতকাল সোমবার ৭৮ শতাংশ কম্পানির শেয়ার দাম কমার সঙ্গে সঙ্গে মূল্যসূচক ও লেনদেনেও বড় ধাক্কা লেগেছে। মূল্যসূচক কমেছে অর্ধশতাধিক পয়েন্ট আর লেনদেন নেমেছে ৫০০ কোটি টাকার ঘরে।

শেয়ার বিক্রির অতিরিক্ত চাপে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বড় দরপতন হয়েছে। গতকাল সোমবার ৭৮ শতাংশ কম্পানির শেয়ার দাম কমার সঙ্গে সঙ্গে মূল্যসূচক ও লেনদেনেও বড় ধাক্কা লেগেছে। মূল্যসূচক কমেছে অর্ধশতাধিক পয়েন্ট আর লেনদেন নেমেছে ৫০০ কোটি টাকার ঘরে।

অন্য বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৮৩ শতাংশ কম্পানির শেয়ার দাম কমার সঙ্গে মূল্যসূচকেও বড় পতন হয়েছে। তবে লেনদেন আগের দিনের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে।

ডিএসইর তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, বাজার মূলধন কমেছে প্রায় চার হাজার কোটি টাকা। আগের দিন রবিবার বাজার মূলধন ছিল তিন লাখ ৮৮ হাজার ৫৮৮ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। আর গতকাল মুলধন দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৮৪ হাজার ৮৪৭ কোটি ১১ লাখ টাকা। সেই হিসাবে মূলধন কমেছে তিন হাজার ৭৪১ কোটি ২৩ লাখ টাকা।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৮০ কোটি টাকা। আর মূল্যসূচক কমেছে ৫৭ পয়েন্ট। শতকরা হিসাবে সূচক কমেছে ১.০৬ শতাংশ। আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৪২ কোটি ৩৯ লাখ টাকা আর সূচক কমেছিল ৫১ পয়েন্ট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই শেয়ার বিক্রির চাপে সূচক কমে যায়। দুপুর ১২টার পর শেয়ার কিনতে কিছুটা চাপ থাকলেও পরবর্তী সময়ে আবারও কমে যায়। এতে দিনের সূচক কমার মধ্য দিয়েই লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৩৫৭ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ১৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮৮৩ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে এক হাজার ২৩৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৭টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৪৯টির, কমেছে ২৬৫টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৩টি কম্পানির শেয়ার দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে খুলনা পাওয়ার। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ৬৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ারের লেনদেন হয়েছে ৪০ কোটি ২২ লাখ টাকা। ৩৩ কোটি ৫৪ লাখ টাকা লেনদেন করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে শাশা ডেনিমস। অন্য শীর্ষ কম্পানিগুলো হলো ইফাদ অটোস, অ্যাক্টিভ ফাইন, বিবিএস কেবলস, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, সায়হাম টেক্স, ন্যাশনাল হাউজিং ও আমান ফিড।

দাম বৃদ্ধির শীর্ষে রয়েছে সায়হাম টেক্স, রিপাবলিক ইনস্যুরেন্স, সিএপিএম আইবিবিএল মিউচুয়াল ফান্ড, তাক্কাফুল ইনস্যুরেন্স, প্রাইম লাইফ ইনস্যুরেন্স, নর্দান ইনস্যুরেন্স, ম্যারিকো বাংলাদেশ, এআইবিএল ফার্স্ট ইসলামী মিউচুয়াল ফান্ড, ডেল্টা লাইফ ইনস্যুরেন্স ও এনএলআই ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড।

অন্যদিকে দাম কমার শীর্ষে রয়েছে ইনটেক লিমিটেড, জনতা ইনস্যুরেন্স, ওয়াইমেক্স ইলেকট্রোড, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রি, গ্লোবাল ইনস্যুরেন্স, কেডিএস অ্যাকসেসরিজ, ফাইন ফুডস, প্রগতি লাইফ ইনস্যুরেন্স, আলহাজ টেক্স ও সোনারগাঁও টেক্সটাইল।

অন্য বাজার সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ১২৬ পয়েন্ট বা ১.২৫ শতাংশ। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা। সোমবার লেনদেন হওয়া ২৪৫ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ২৭টির, দাম কমেছে ২০৫টি আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টি কম্পানির শেয়ার দাম। (কালের কণ্ঠ)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *