শনিবার ২৯, জানুয়ারী ২০২২
EN

পদত্যাগের আহ্বান, ক্ষমা চাইলো বরিস সরকার

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যের আগের সন্ধ্যায় বরিসের সরকারি বাসভবনের ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টির আয়োজন করায় দেশটির সরকার এ ক্ষমা চাইলো।

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যের আগের সন্ধ্যায় বরিসের সরকারি বাসভবনের ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টির আয়োজন করায় দেশটির সরকার এ ক্ষমা চাইলো। 

জনসনের কার্যালয়ের মুখপাত্র সাংবাদিকদের বলেন, গভীরভাবে দুঃখজনক যে এটা জাতীয় শোকের সময় ঘটেছে এবং বরিসের কার্যালয় বাকিংহাম প্রাসাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে।  

আজ শুক্রবার ( ১৪ জানুয়ারি) টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২১ সালের ১৬ মে বরিসের কার্যালয়ে তার স্টাফরা পার্টির আয়োজন করে। তাতে অন্তত ৩০ জন অংশ নিয়েছিলেন। পার্টি ছিল মদ ও নাচের। তাতে ছিলেন না বরিস জনসন। 

তবে  ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে করোনার বিধিনিষেধ ভাঙার জন্য নানা প্রশ্নের মুখে পড়ছেন বরিস। 

এদিকে গত বুধবার ২০২০ সালের মে মাসে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টিতে যোগদানের ব্যাপার স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে বরিস বলেন, আমি জনগণের ক্ষোভ বুঝতে পেরেছি।  

গত বুধবার পার্লামেন্টে বরিস বলেন, আমি বুঝি আমার নেতৃত্বের সরকারকে নিয়ে তারা আমার প্রতি ক্ষুব্ধ, কেননা তারা ভাবছে যখন ডাউনিং স্ট্রিটে নিয়মগুলো যারা তৈরি করে তারাই তা সঠিকভাবে মানছে না। 

এমন কর্মকাণ্ডে দেশটির প্রধান বিরোধী দলগুলো বরিসের পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন। বিবিসি, এনডিটিভি।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *