মঙ্গলবার ৯, অগাস্ট ২০২২
EN

পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়া ও আগাম নির্বাচনের দাবি আল-সদরের

ইরাকের লোকপিম মুসলিম ব্যক্তিত্ব মুক্ততাদা আল-সদর পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়া এবং আগাম নির্বাচনের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত বাগদাদের জাতীয় পার্লামেন্ট ভবনে অবস্থান ধর্মঘট অব্যাহত রাখার জন্য তার সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল বুধবার (৩ আগস্ট) নাজাফ থেকে এক টেলিভিশন বক্তৃতায় তিনি এই আহ্বান জানান। এর ফলে ইরাকে রাজনৈতিক অচলাবস্থা অব্যাহত থাকতে পারে। উল্লেখ্য, দেশটিতে প্রায় ১০ মাস ধরে নির্বাচিত সরকার নেই।

আল-সদরের হাজার হাজার অনুসারী গত সপ্তাহে বাগদাদের সুরক্ষিত গ্রিন জোনে জোর করে ঢুকে ফাঁকা পার্লামেন্ট ভবনে অবস্থান ধর্মঘট চালিয়ে যাচ্ছে। উল্লেখ্য, গ্রিন জোনেই বিভিন্ন সরকারি ভবন ও বিদেশী মিশনগুলো রয়েছে।

আল-সদরের সমর্থকেরা পার্লামেন্ট ভবনের চারপাশে তাঁবু ও খাবারের স্টল স্থাপন করেছে।

এটি হলো তার শিয়া মুসলিম প্রতিদ্বন্দ্বীদের সরকার গঠনের চেষ্টা ভণ্ডুল করার চেষ্টা। এসব প্রতিদ্বন্দ্বীর অনেকে ইরান-সমর্থিত কো-অর্ডিনেশন ফ্রেমওয়ার্কের সাথে ঘনিষ্ঠ। তাদের প্রধানমন্ত্রীর প্রার্থীকে আল-সদর মেনে নিতে পারছেন না।

গত অক্টোবরে অনুষ্ঠিত পার্লামেন্ট নির্বাচনে সদর সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছেন। তবে তার ইরান-সমর্থিত প্রতিদ্বন্দ্বীদের বাদ দিয়ে সরকার গঠন করতে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন।

তিনি পার্লামেন্ট থেকে তার আইনপ্রণেতাদের প্রত্যাহার করে নিয়ে প্রতিবাদ ও পার্লামেন্টে অবস্থান ধর্মঘট করার মাধ্যমে চাপ প্রয়োগ করে যাচ্ছেন। এই কাজে তিনি তার জনপ্রিয় ঘাঁটি থেকে লাখ লাখ শ্রমজীবী শিয়া ইরাকিকে কাজে লাগাচ্ছেন।

আল-সদর তার বক্তৃতায় বলেন, তিনি তার দাবি আদায়ের জন্য 'শহিদও হতে' প্রস্তুত রয়েছেন।

আল-সদর বলেন, 'পার্লামেন্ট ভেঙে দাও, আগাম নির্বাচন দাও।'

তিনি বলেন, 'আমি সংলাপ চাই বলে যে গুজব রটেছে, তা বিশ্বাস করবেন না।'
তিনি বলেন, 'আমরা তাদের সাথে ইতোমধ্যেই সংলাপ চালিয়েছি। এতে আমাদের বা জাতির জন্য কোনো ফায়দা হাসিল হয়নি।' তথ্যসূত্র : আলজাজিরা।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *