রবিবার ২৩, জানুয়ারী ২০২২
EN

প্রয়োজনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস বন্ধ করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী

করোনা ভাইরাসের নতুন ধরণ ওমিক্রনের কারণে প্রয়োজনে আবারো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস বন্ধ করে দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

করোনা ভাইরাসের নতুন ধরণ ওমিক্রনের কারণে প্রয়োজনে আবারো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস বন্ধ করে দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

গতকাল সোমবার ( ৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি এই কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সারাক্ষণই করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। যদি আমরা মনে করি, আমাদের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের স্বার্থে ক্লাসের সংখ্যা আবার কমিয়ে দেয়া প্রয়োজন, কমিয়ে দেব, বন্ধ করে দেয়া প্রয়োজন, বন্ধ করে দেব। সবই প্রয়োজন বুঝে করব।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মার্চ পর্যন্ত না দেখে তারা বলতে পারবেন না যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পুরোদমে কার্যক্রম চালু করতে পারবেন কি না। তবে গতবারের চেয়ে কোনো কোনো ক্লাস বাড়ানো হয়েছে। আগে কোনো কোনো ক্লাসে যেখানে এক দিন ক্লাস হতো, সেখানে একাধিক দিন হয়েছে।

বিশ্বের যেকোনো দেশের তুলনায় বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি ভালো অবস্থায় আছে উল্লেখ করে দীপু মনি বলেন, তারপরও অমিক্রনের একটি ধাক্কা শুরু হয়েছে। সেই ঢেউয়ে বহু উন্নত দেশও পর্যুদস্ত।

পাশের দেশেও সংক্রমণের বড় আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।

বাংলাদেশে এখনো আশঙ্কাজনক জায়গায় নেই। সংক্রমণের হারও কম। কিন্তু এটি ১ শতাংশে নেমে এসেছিল। সেখান থেকে বেড়েছে। অমিক্রনে আক্রান্ত রোগীও শনাক্ত হয়েছে। কাজেই এখন অত্যন্ত সতর্ক হতে হবে। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি জরুরিভাবে মেনে চলতে হবে।

করোনার সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধের পর গত সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও এখনো স্বল্প পরিসরে শিক্ষা কার্যক্রম চলছে।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *