রবিবার ২৭, নভেম্বর ২০২২
EN

বিএনপি জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক : ড. হাছান মাহমুদ

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি জোটের মধ্যেই জঙ্গিগোষ্ঠী আছে। আজকে জঙ্গিদের আস্ফালন ও মির্জা ফখরুলের বক্তব্য একসূত্রে গাঁথা।

কারণ, তারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। ঢাকায় জঙ্গি ছিনিয়ে নেওয়া, চট্টগ্রামে পুলিশ বক্সের ওপর হামলা এবং নানাভাবে জঙ্গিদের যে অপতৎপরতা; এটির সাথে বিএনপির যে দেশব্যাপী অপতৎপরতা- তা একসূত্রে গাঁথা।

তিনি বলেন, যখন সরকার জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেছিল এবং ব্যাপকভাবে তাদের ধরা হচ্ছিল; তখন তিনি বলেছিলেন যে, কিছু লোককে ধরে আনা হয় এবং কিছুদিন আটকে রাখার পর যখন তাদের চুল দাড়ি লম্বা হয় তাদের জঙ্গি বলা হয়। অর্থাৎ এটির মাধ্যমে জঙ্গিদের যে গ্রেফতার করা হয় তার বিরোধিতা করেছিল তারা।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাজধানীর বাংলামোটর এলাকায় বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘উন্নয়ন সমন্বয়’ আয়োজিত ‘তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে গণমাধ্যমের সাথে অভিজ্ঞতা বিনিময়’ শীর্ষক এক সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

বিএনপির সমাবেশ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা কাউকে বাধা দিতে চাই না। বাধা দিলে তো কোনও সমাবশে করতে পারতো না। বাধা তারা দিয়েছিল। আমাদের সমাবেশে গ্রেনেড হামলা চলিয়ে ছিল। আমাদের বিভিন্ন সমাবেশে বোমা হামলা চালিয়েছে। বহু মানুষকে হত্যা করেছে।

‘তাদের সমাবেশেও আজ পর্যন্ত একটা পটকাও ফুটেছে? একটা মিটিং পণ্ড করতে তো দুটি পটকাই এনাফ। যেদিন সমাবেশ তার দু’দিন আগে দু’একটি পটকা ফুটলেই তো আর মিটিং হয় না। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে সর্বতভাবে সহযোগিতা করছি যাতে তারা ভালোভাবে সমাবেশ করতে পারে।’

১০ ডিসেম্বর বিএনপি ‘হীন উদ্দেশে’ রাস্তায় সমাবেশ করতে চাইছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ঢাকায় এত মাঠ থাকতে উনারা নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে চায়। উদ্দেশ্য কী? এর উদ্দেশ্য হচ্ছে, এখানে সমাবেশ করলে গাড়ি ভাঙচুর করা যাবে, বিশৃঙ্খলা তৈরি করা যাবে এবং জনজীবনে দুর্ভোগ সৃষ্টি করা যাবে।

‘এজন্য তারা ব্যস্ত রাস্তায় সমাবেশ করতে চায়। আমরা তো রাস্তায় কোনও সমাবেশ করিনি। তাহলে তাদের কেন রাস্তায় সমাবেশ করা উদ্দেশ্য। এটার পেছনে হীন উদ্দেশ্য আছে।’

বিএনপি দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায় মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এর মাধ্যমে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় তারা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আজকে বিশ্ব প্রেক্ষাপটে সারাবিশ্বের অর্থনীতি যখন টালমাটাল তখন বাংলাদেশের অর্থনীতি মজবুত ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে আছে। এটা মির্জা ফখরুল সাহেব, রিজভী সাহেব, গয়েশ্বর বাবু, আরও যারা নেতৃবৃন্দ আছেন তারা যাই বলেন না কেন, বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট এসে দেখা করে বলে গেছেন, বাংলাদেশ এই সংকটের মধ্যেও যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা অন্য দেশের জন্য উদাহরণ।

তিনি আরও বলেন, ফখরুল সাহেব তো শিক্ষিত মানুষ, আমি আশা করবো তিনি একটু পড়াশোনা করবেন। বিশ্ব প্রেক্ষাপট দেখবেন এবং বিশ্বনেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ সম্পর্কে কী বলছেন সেটিও শুনবেন।

এন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *