মঙ্গলবার ১৬, অগাস্ট ২০২২
EN

বাড়ির জন্য ব্যাংক ঋণ পাওয়া যাবে ২ কোটি টাকা

ব্যক্তিশ্রেণির গ্রাহক পর্যায়ে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর গৃহায়ন ঋণের সীমা বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে একক ব্যক্তি পর্যায়ে ব্যাংকগুলো সর্বোচ্চ ২ কোটি টাকা ঋণ দিতে পারবে। মোট ঋণের মধ্যে ব্যাংক দিতে পারবে ৭০ শতাংশ এবং গ্রাহককে দিতে হবে ৩০ শতাংশ।

ব্যক্তিশ্রেণির গ্রাহক পর্যায়ে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর গৃহায়ন ঋণের সীমা বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে একক ব্যক্তি পর্যায়ে ব্যাংকগুলো সর্বোচ্চ ২ কোটি টাকা ঋণ দিতে পারবে। মোট ঋণের মধ্যে ব্যাংক দিতে পারবে ৭০ শতাংশ এবং গ্রাহককে দিতে হবে ৩০ শতাংশ।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে একটি সার্কুলার জারি করে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

আগে ব্যাংকগুলো এ খাতে একক ব্যক্তি পর্যায়ে সর্বোচ্চ ১ কোটি ২০ লাখ টাকা ঋণ দিতে পারত। ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ঋণের এ সীমা চালু করা হয়েছিল। প্রায় ৫ বছর পর কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ খাতে ঋণসীমা ৮০ লাখ টাকা বাড়াল। তবে ব্যাংক-গ্রাহক ঋণের অনুপাত অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়, আবাসন খাতের নির্মাণসামগ্রী, জমি ও অন্যান্য উপকরণের দাম বাড়ার কারণে বাড়ি নির্মাণ বা ফ্ল্যাটের দাম বেড়েছে। একই সঙ্গে ভোক্তাদের ক্রয়ক্ষমতাও বেড়েছে। এসব বিবেচনায় গৃহায়ন খাতে একক ব্যক্তি ঋণসীমার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ বিধান শুধু ভোক্তা ঋণ নীতিমালার আওতায় বিতরণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। অন্য খাতের ঋণের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে না।

এএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *