মঙ্গলবার ২৫, জানুয়ারী ২০২২
EN

বিদেশি কর্মী নিয়োগে তৃতীয় পক্ষের ভূমিকা চায় না মালয়েশিয়া সরকার

নিয়োগকারীদের আবেদন প্রক্রিয়া দ্রুত করার উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়ার সরকার মধ্যস্থতাকারী বা তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে কোনো অর্থ প্রদান না করার পরামর্শ দিয়েছে।

নিয়োগকারীদের আবেদন প্রক্রিয়া দ্রুত করার উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়ার সরকার মধ্যস্থতাকারী বা তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে কোনো অর্থ প্রদান না করার পরামর্শ দিয়েছে।

মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ বিষয়কমন্ত্রী এম. সারাভানান বিদেশি কর্মীদের নিয়োগ ও কর্মসংস্থানের বিষয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘দায়িত্বহীন পক্ষের দ্বারা জালিয়াতিরোধে এটি করা হয়েছে।’

মালয়েশিয়ান মন্ত্রী নিয়োগকর্তাদের মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, যারা বিদেশি কর্মী নিয়োগ করতে চান তাদের নিজস্ব চাহিদার ভিত্তিতে আবেদন জমা দিতে পারবেন।

যেসব নিয়োগকর্তারা বেসরকারি কর্মসংস্থান সংস্থাগুলোর পরিষেবা ব্যবহার করেন তাদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে সংস্থাটি নিবন্ধিত এবং ব্যক্তিগত কর্মসংস্থান সংস্থা আইন ১৯৮১ এর অধীনে জনশক্তি বিভাগ দ্বারা প্রত্যয়িত লাইসেন্স রয়েছে।

গত বছরের ১০ ডিসেম্বর মালয়েশিয়ার মন্ত্রিসভার বৈঠকে সব কর্মসংস্থান খাতে বিদেশি শ্রমিকদের প্রবেশের অনুমোদন দেয়া হয়।

অনুমোদিত খাতগুলো হলো কৃষি, উৎপাদন, পরিষেবা, খনি এবং খনন, নির্মাণ এবং গৃহকর্মী।

এর আগে বিশেষ ছাড়সহ ৩২ হাজার বিদেশি শ্রমিককে বৃক্ষরোপণ খাতে নিয়োগের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়।

বিবৃতি অনুযায়ী, এই সমস্ত বিদেশি কর্মীদের জন্য স্থায়ী অপারেটিং প্রসিডিউর মেনে চলতে হবে। গত ১৪ ডিসেম্বর কোভিড-১৯ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে বিষয়টি অনুমোদিত হয়। সূত্র : ইউএনবি।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *