সোমবার ১৭, জানুয়ারী ২০২২
EN

ব্লিটজ সম্পাদক শোয়েবের ৭ বছর জেল

লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে দেশের ক্ষতি করার দায়ে দশ বছর আগের একটি মামলায় ব্লিটজ সম্পাদক সালাহউদ্দিন শোয়েব চৌধুরীকে সাত বছরের করাদণ্ড দিয়েছে আদালত। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ মো. জহুরুল হক বৃহস্পতিবার এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

[b]ঢাকা:[/b] লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে দেশের ক্ষতি করার দায়ে দশ বছর আগের একটি মামলায় ব্লিটজ সম্পাদক সালাহউদ্দিন শোয়েব চৌধুরীকে সাত বছরের করাদণ্ড দিয়েছে আদালত। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ মো. জহুরুল হক বৃহস্পতিবার এ মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিচারক বলেন,মামলায় আসামির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হলেও লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে দেশের ক্ষতি ও অনিষ্ট করার দায়ে দণ্ডবিধির ৫০৫ এ ধারায় তাকে এ শাস্তি দেয়া হলো। আদালতে উপস্থিত শোয়েবের ভাই সোহেল চৌধুরী  বলেন,এ রায়ের বিরুদ্ধে তারা উচ্চ আদালতে যাবেন। ২০০৪ সালের ২৪ জানুয়ারি রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় দায়ের করা এ মামলার অভিযোগে বলা হয়, ২০০৩ সালের ২৯ নভেম্বর ইসরায়েলে যাওয়ার পথে ইমিগ্রেশন পুলিশ ৫৪ ধারায় আটক করে শোয়েবকে। তার কাছ থেকে ‘এডুকেশন টুয়ার্ডস কালচার অফ পিস’ সম্মেলনে উপস্থাপনের জন্য একটি ভাষণের কপিও উদ্ধার করা হয়। পরে বিমানবন্দর থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হানিফ তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে এ   মামলা দায়ের করেন। অভিযোগে বলা হয়, শোয়েব যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউএসএ টুডে ’ পত্রিকায় প্রকাশিত ‘হ্যালো তেল আবিব’ শীর্ষক নিবন্ধে মুসলামানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে ইহুদিবাদের পক্ষে কথা বলেন। ২০০৫ সালের ৯ জানুয়ারি এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়; অভিযোগ গঠন করা হয় পরের বছর ১৩ নভেম্বর। চলতি বছর ২৭ অক্টোবর এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। রাষ্ট্রপক্ষে সাক্ষ্য দেন ১৮ জন।সাফাই সাক্ষ্য দেন একজন। সালাহউদ্দিন শোয়েব চৌধুরী এ মামলায় জামিনে থাকলেও অন্য একটি মামলায় তাকে কারাগারে ছিলেন। তার উপস্থিতিতেই মামলার রায় ঘোষণা করেন বিচারক। কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে শোয়েব চৌধুরী বলেন, এর আগে একই ঘটনায় পাসপোর্ট আইনের মামলায় তাকে জরিমানা করেছিল ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *