রবিবার ৩, জুলাই ২০২২
EN

বাহরাইনে সরকার বিরোধী বিশাল বিক্ষোভ

সরকারি দমন অভিযান সত্ত্বেও বাহরাইনের রাজধানী মানায় রাজতন্ত্র বিরোধী বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশটির প্রধান রাজনৈতিক দল আল-ওয়েফাকের ডাকে শনিবার এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। বাহরাইনে রাজতন্ত্র বিরোধী গণআন্দোলন শুরু হওয়ার তৃতীয় বার্ষিকীর একদিন পর অনুষ্ঠিত এ বিক্ষোভে হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেছে।

সরকারি দমন অভিযান সত্ত্বেও বাহরাইনের রাজধানী মানায় রাজতন্ত্র বিরোধী বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশটির প্রধান রাজনৈতিক দল আল-ওয়েফাকের ডাকে শনিবার এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। বাহরাইনে রাজতন্ত্র বিরোধী গণআন্দোলন শুরু হওয়ার তৃতীয় বার্ষিকীর একদিন পর অনুষ্ঠিত এ বিক্ষোভে হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেছে। শনিবার মানামায় এ বিক্ষোভ হলেও দিনের শুরুতে জাদ হাফস, দিরাজ ও আন-নাবিহ’সহ বেশ কিছু শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ছাড়া, শুক্রবার বাহরাইনের নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় বহু বিক্ষোভকারী আহত হয় এবং পুলিশ কয়েক ডজন বিক্ষোভকারীকে ধরে নিয়ে যায়। এর আগে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ‘দাঙ্গা ও নাশকতা’ চালানোর অপরাধে রাজধানী মানামা ও এর আশপাশের এলাকা থেকে অন্তত ৩০ জন বিক্ষোভকারীকে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনী। জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন গত শুক্রবার বাহরাইন সরকারের প্রতি শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দমনের ক্ষেত্রে মানবাধিকার সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাহরাইনে রাজতন্ত্র বিরোধী গণজাগরণ শুরু হয়। গোড়ার দিকে বিক্ষোভকারীদের দাবি ছিল দেশটিতে ব্যাপক রাজনৈতিক সংস্কার এবং সাংবিধানিক রাজতন্ত্র। কিন্তু ধীরে ধীরে সে দাবি আলে-খলিফা সরকারের পতনের দাবিতে পরিণত হয়। কিন্তু সরকার কঠোর হাতে এ গণজাগরণ দমন করে। ২০১১ সালেরই মার্চ মাসে বাহরাইনের বিক্ষোভ দমনে দেশটিতে সেনা পাঠায় সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। [b]ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি (টাইমনিউজবিডিডটকম) // ইএইচ[/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *