বুধবার ৭, ডিসেম্বর ২০২২
EN

ভাড়া বাসা খুঁজতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার বিউটি পার্লার কর্মী

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলায় ভাড়া বাসা খুঁজতে গিয়ে এক বিউটি পার্লার কর্মী দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সিংগাইর থানার ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্ল্যা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার ধল্লা ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্যরা পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি উপজেলার ধল্লা এলাকার ইকরাম হোসেনের ছেলে মনির হোসেন (৩৫)। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি।

জানা গেছে, দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ভুক্তভোগী তরুণী (২৩) ঢাকার একটি বিউটি পার্লারে চাকরি করতেন। সম্প্রতি তিনি এলাকায় ফিরে নিজেই একটি বিউটি পার্লার দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। গত ৩ সেপ্টেম্বর ধল্লা এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নেন তিনি। কিন্তু ব্যাচেলর হওয়ায় তাকে বাসা ভাড়া দেওয়া হবে না বলে শুক্রবার জানিয়ে দেন বাড়ির মালিক। এরপর নতুন বাসা খুঁজছিলেন তিনি।

এদিকে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই এলাকার মনির হোসেন, আনিছ ও ফুলচান মিয়া তাকে বাসা দেখানোর কথা বলে একটি ফাঁকা স্থানে নিয়ে যান। এ সময় পরিত্যক্ত একটি ঘরে নিয়ে সবাই মিলে তাকে ধর্ষণ করে। পরে ভুক্তভোগী তরুণী ধল্লা পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে ঘটনাটি জানান। এরপর অভিযুক্ত মনির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সিংগাইর থানার ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্ল্যা জানান, এ সংবাদ পেয়ে তিনি নিজেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগীকে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *