সোমবার ২৭, জুন ২০২২
EN

যুদ্ধবিরতির সমর্থনে সকল পক্ষই রয়েছে: ইউক্রেন

অবশেষে রাশিয়া ও ইউক্রেন দীর্ঘ ৮ ঘণ্টার বেশি আলোচনার পর ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে অস্ত্রবিরতিতে রাজি হয়েছে।

অবশেষে রাশিয়া ও ইউক্রেন দীর্ঘ ৮ ঘণ্টার বেশি আলোচনার পর ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে অস্ত্রবিরতিতে রাজি হয়েছে।

গতকাল বুধবার (২৬ জানুয়ারি) ফ্রান্সের প্যারিসে দীর্ঘ আলোচনার পর অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হয় দেশ দুটি।

বৈঠক শেষে মস্কোর প্রধান আলোচক দিমিত্রি কোজাক বলেছেন, যুদ্ধবিরতি অবশ্যই ‘শর্তহীনভাবে’ পালন করা উচিত। তবে পূর্ব ইউক্রেনের অন্যান্য অনেক সমস্যা এখনও অমীমাংসিত রয়ে গেছে।

কিয়েভের আলোচক আন্দ্রি ইয়ারমাক বলেছেন, সকল পক্ষই যুদ্ধবিরতির সমর্থনে রয়েছে। যুদ্ধ এড়াতে ও সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে আলোচনার জন্য সব সময়ই প্রস্তুত রয়েছে ইউক্রেন।

কোজাক এবং ইয়ারমাক দুজনই বলেছেন, বার্লিনে দুই সপ্তাহের মধ্যে আবার আলোচনা শুরু হবে।

উল্লেখ্য, রাশিয়া ২০১৪ সালে ইউক্রেনের ক্রিমিয়া উপদ্বীপ দখল করে নেয়। এরপর থেকে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে বিচ্ছিন্নতাবাদী ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে লড়াই চলছে।

ইতোমধ্যে পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, প্রায় এক লাখ রুশ সেনা ইউক্রেন সীমান্তে অবস্থান নিয়েছে।

পশ্চিমা দেশগুলোর অভিযোগ, শিগগির ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে রাশিয়া। তবে রাশিয়া বরাবরই ইউক্রেনে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে। সূত্র: দ্য মস্কো টাইমস, সিএনএন।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *