মঙ্গলবার ৭, ডিসেম্বর ২০২১
EN

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারকে কড়া বার্তা দেবে ইন্দোনেশিয়া

দীর্ঘদিন ধরে অমীমাংসিত রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারকে কড়া বার্তা দিতে যাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া।

দীর্ঘদিন ধরে অমীমাংসিত রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারকে কড়া বার্তা দিতে যাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া। বুধবার ঢাকায় সফররত ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো মারসুদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ কথা জানিয়েছেন।

এসময় মারসুদি বলেন, ‘রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে আমরা মিয়ানমারকে একটি কড়া বার্তা দেবো।’

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এসময় শেখ হাসিনা বলেন, জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিকদের আশ্রয় দেয়ার পর, তিন বছর পার হয়ে গেছে। বাংলাদেশ ক্ষতিপূরণের জন্য অপেক্ষা করে যাচ্ছে কারণ বর্তমানে এটি বাংলাদেশের জন্য একটি বড় বোঝায় পরিণত হয়েছে।’

১৮তম ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) মন্ত্রী পরিষদ বৈঠকে যোগ দিতে ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায় এসেছেন।

এছাড়া এ বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় আসা দক্ষিণ আফ্রিকার আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী ড. প্যন্ডরও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম প্রধানমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে জানান, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,‘আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত সুনীল অর্থনীতি বিকাশের স্বার্থে ভারত মহাসাগরকে শান্তিপূর্ণ রাখা।’

এসময় ড. প্যন্ডর বৈশ্বিক করোনা মহামারির কথা উল্লেখ করে দক্ষিণ আফ্রিকা ফাইজার এবং জনসনের করোনা টিকা তৈরির কথা জানিয়েছেন।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরেক পৃথক বৈঠকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি, বিশেষ করে যোগাযোগ প্রযুক্তি, ব্যবসা ও ব্যাংকিং কার্যক্রম এবং সামাজিক নিরাপত্তা বৃদ্ধির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

ইহসানুল করিম জানান, এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহামারি মোকাবিলায় সরকারের ক্ষুদ্র সঞ্চয় কর্মসূচির কথা উল্লেখ করেন। এছাড়া মহামারি পরবর্তী সময়ে দেশে খাদ্য ঘাটতি এড়াতে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা খাদ্য সুরক্ষার ওপর বিশেষ জোর দিয়েছি।’

বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও মূখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন। সূত্র : বাসস।

এবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *