বুধবার ১, ফেব্রুয়ারি ২০২৩
EN

সাকিবের ব্যাট হাসলেও ডমিনিকায় হেরেছে বাংলাদেশ

সাকিব আল হাসান একপ্রান্তে ধরে রাখলেও সতীর্থদের ঘরে ফেরার মিছিলে প্রয়োজনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে পারেননি। যদিও ফিফটির দেখা পেয়েছেন, তবে ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করে ৪৫ বলে পাওয়া সেই অর্ধশতক দিন শেষে ম্লান হয়ে গেছে।

স্বাগতিক ক্যারিবীয়রা ডমিনিকায় দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে রভম্যান পাওয়েলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের স্কোর বোর্ডে ১৯৩ রানের পাহাড় জমা করে। ১৯৪ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ব্যাট্যারদের ব্যর্থতায় ১৫৮ রানেই থামতে হয়েছে টাইগারদের। ফলে ৩৫ রাতে হারতে হয়েছে সফরকারী বাংলাদেশকে।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওপেনিংয়ে প্রায় প্রতি ম্যাচেই বদল আসছে। আজও তার ব্যতিক্রম হয়নি। টেস্ট সিরিজ থেকে রান খরায় ভোগা ডানহাতি ব্যাটার লিটন দাস শুরুতেই ফিরে যান ৫ রানে। দ্বিধাদ্বন্দ্ব নিয়ে ব্যাট চালিয়ে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে প্রথম বলে ক্যাচ দেন লিটন। ম্যাককয়ের করা পরের বলেই বোল্ড ন এনামুল হক বিজয়। ৪ বলে ৩ করেন তিনি।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ভালো শুরুর বার্তা দিয়েও তার ইনিংস থামে ৭ বলে ১১ রানে। এরপর খানিক চেষ্টা করেছিলেন সাকিব আল হাসান আর আফিফ হোসেন। তবে লাভ হয়নি।

দুজনের পার্টনারশিপ থেকে চতুর্থ উইকেটে আসে ৪৪ বলে ৫৫ রান। আফিফ ২৭ বলে ৩৪ রানে স্কুপ করতে গিয়ে উইকেটের পিছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। এরপর ৬ ওভারে জয়ের জন্য যখন ১০০ রান প্রয়োজন, তখন ১৩ বলে ৭ রানের টেস্ট ইনিংস খেলে আউট হন নুরুল হাসান সোহান। সাকিব অবশ্য একপ্রান্তে ধরে রাখেন, তবে প্রয়োজনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে পারেননি।

যদিও সাকিব পরে ফিফটির দেখা পেয়েছেন। শেষদিকে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে নিয়ে যখন হাতে খুলে ব্যাটিং শুরু করেন, তার বেশ আগেই ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছে সফরকারীরা। সাকিবের ৫টি চার আর ৩টি ছয়ে ৫১ বলে ৬৭ রানের ইনিংসটা হারের ব্যবধানই কমিয়েছে শুধু।

সঙ্গে মোসাদ্দেকের ১১ বলে ১৫ রানের সুবাদে ২০ ওভার শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৮ রানে থামে বাংলাদেশ দলের ইনিংস। এতে ৩৫ রাতে হারতে হয় টাইগারদের।

ফলে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিত পরিত্যক্ত হওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচ হেরে সিরিজের ০-১ ব্যবধানে পিছিয়েছে বাংলাদেশ।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *