শুক্রবার ৩, ডিসেম্বর ২০২১
EN

স্বর্ণের মাস্ক পরলেন তুর্কি দুই নববধূ

করোনাভাইরাসের এই যুগে, তুরস্কে দুজন নববধূ তাদের বিয়ের দিনে নতুন এক স্বর্ণের অ্যাকসেসরি পরে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। খবর ডেইলি সাবাহ’র।

 

বিয়ের দিন সাধারণত স্বর্ণের গহনা এবং স্বর্ণের তৈরি অন্যান্য উপহার পেয়ে থাকেন তুরস্কের নববধূরা। কিন্তু করোনার কারণে বহু মানুষ তাদের ঐতিহ্যবাহী বিয়ের অনুষ্ঠানে পরিবর্তন আনতে বাধ্য হয়েছে। বাদ দিতে হয়েছে নাচের অনুষ্ঠান, আবার মাস্কও পরতে হয়েছে।

কিন্তু কথায় আছে, প্রয়োজন মানুষকে আবিষ্কারে উদ্বুদ্ধ করে। তেমনি করোনার মধ্যেও নতুন এক স্বর্ণের গহনার আবির্ভাব ঘটেছে। আর তা হলো স্বর্ণের মাস্ক।

তুরস্কের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় কাহরামানমারাসে একজন ক্রাফটসম্যান নববধূর জন্য স্বর্ণের মাস্ক তৈরি করা শুরু করেছে। তিনি সাধারণত ১৪ ক্যারেট এবং ২২ ক্যারেট স্বর্ণ এসব মাস্ক তৈরি করেন।

মাস্কগুলো এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে স্টাইলও ঠিক থাকে আবার করোনার সংক্রমণও যেন ঠেকানো যায়।

বিলাসবহুল এই মাস্কগুলো দাম ৮ হাজার তুর্কি লিরা (১ হাজার ১৫০ ডলার) থেকে ৭৫ হাজার তুর্কি লিরা পর্যন্ত।

নববধূরা তাদের চাহিদা অনুযায়ী মাস্কের অর্ডার দেন। অর্ডারের তিনদিনের মধ্যেই তৈরি হযে যায় মাস্ক।

বিভিন্ন স্টাইলের মাস্ক তৈরি করেন নির্মাতারা এবং এগুলো অনন্য একটি গহনা হিসেবে পরা যায়। চেম্বার অব জুয়েলার্স অব কাহরামানমারাসের চেয়ারম্যান মুস্তাফা ওজ বলেছেন, এসব মাস্কের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইলহান নিউজ এজেন্সিকে তিনি বলেন, আমরা সব বিয়ের অনুষ্ঠানে নববধূদের মুখে এই স্বর্ণের মাস্ক দেখতে পাবো বলে আশা করি।

এএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *