রবিবার ২, অক্টোবর ২০২২
EN

সম্পদ বিবরণী জমা দিলেন রুহুল হক

সাবেক সাবকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক,তার স্ত্রী ইলা হক ও ছেলে জয়িাউল হকের স্থাবর অস্থাবর সম্পদের বিবরণী জমা দিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) । বিষয়টি টাইম নিউজবিডি .কমকে নিশ্চিত করেছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা ও উপপরিচালক প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য।

সাবেক সাবকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক,তার স্ত্রী ইলা হক ও ছেলে জয়িাউল হকের  স্থাবর অস্থাবর সম্পদের বিবরণী জমা দিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) । বিষয়টি টাইম নিউজবিডি .কমকে নিশ্চিত করেছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা ও উপপরিচালক প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য। রোবার দুপুরে দুদক সচিবের দফতরে  সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুহুল হক নিজে এই  সম্পদ বিবরণী  জমা দিয়ে পেছনের গেট দিয়ে বেরিয়ে যান। ২১ জানুয়ারি  দুদকরে উপ-পরিচালক মির্জা জাহিদুল আলমকে সাবেক মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক এবং তার পরিবারের সদস্যদের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানকারী র্কমর্কতা  নিয়োগ দেয়া হয়। এরপর দুদকের ওই অনুসন্ধানী কর্মকর্তা সাবেক এই মন্ত্রীকে ডেকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদের পর ৭ কার্যদিবসের মধ্যে রুহুল হককে তার পরিবারের সদস্যদের সম্পদ বিবরণী জমা দেয়ার জন্য নোটিশ পাঠান। রুহুল হক আবেদন করে ২ সপ্তাহ সময়  নিয়ে আজ রোববার সম্পদ বিবরণী জমা দিয়েছেন। এর আগে গত ১২ জানুয়ারি রুহুল হকের বিরুদ্ধে অবধৈ সম্পদের অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক। জানা যায়, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আফম রুহুল হকের সম্পদ গত ৫ বছরে বেড়েছে ১০ গুণ।  তার ব্যাংক ব্যালেন্সের অধিকাংশ তার স্ত্রী ইলা হকের নামে। ৫ বছর আগে  রুহুল হক এবং তার স্ত্রীর নামে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত টাকা ছিল ৯২ লাখ ৩৬ হাজার ১০৮ টাকা। রুহুল হকের ব্যাংক ব্যালেন্স ২০০৮ সালে ছিল প্রায় ৮৮ লাখ টাকা। বর্তমানে  প্রায়  ২ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। নির্বাচন কমিশনে গত ২০০৮ সালের তুলনায় তার অস্থাবর সম্পদ ৪ গুণ বেড়েছে। বর্তমানে তাদের ব্যাংক ব্যালেন্স  বৃদ্ধি পেয়ে ১০ কোটি ১৫ লাখ ৯৪ হাজার ৭৬৩ টাকা হয়েছে। ২০০৮ সালে স্ত্রী ইলা হকের নামে ব্যাংক ব্যালেন্স ছিল মাত্র ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৩০ টাকা। বর্তমানে  ৭  কোটি ৫৩ লাখ ১১ হাজার ২৪০ টাকা। তার সম্পদের বৃদ্ধির হার ১৬৫ গুণ।   ২০০৮ সালে তার  স্ত্রীর সম্পদের পরিমাণ ছিল ৪ কোটি টাকার। ২০১৩ সালে সম্পদের পরিমাণ ১৬ কোটি টাকা ছাড়িয়ে  গেছে। ১০  কোটি টাকা ব্যাংক ব্যালেন্স রয়েছে। ইলা হকের সম্পদের পরিমাণ  বেড়েছে ৮ গুণ। তার নামে অস্থাবর সম্পত্তি ছিল ৯৫ লাখ টাকার। [b]ঢাকা,একে, ৩০ মার্চ (টাইম নিউজবিডি.কম) // জেআই[/b]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *