সোমবার ২৭, জুন ২০২২
EN

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় ভারতীয় সেনা সর্বাধিনায়কের মৃত্যু, যান্ত্রিক ত্রুটি নাকি নাশকতা ?

ভারতের সেনা সর্বাধিনায়কের সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে পড়ার ঘটনা বিস্মিত করেছে সবাইকে। এখন প্রশ্ন উঠছে এটি কি নিছক দুর্ঘটনা না কি এর পিছনে নাশকতা রয়েছে। ভারতের ভিভিআইপি হেলিকপ্টারের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়েও বিতর্ক দানা বেঁধে উঠেছে।

ভারতের ইতিহাসের প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক জেনারেল বিপিন রাওয়াত সামরিক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

গতকাল বুধবার ( ৮ ডিসেম্বর) তামিলনাড়ুর কনুড়ের পাহাড় ঘেরা নীলগিরির জঙ্গলেই বিধ্বস্ত হয়ে পড়ল তাকে বহনকারী হেলিকপ্টার।

দেশটির সেনা সর্বাধিনায়কের সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে পড়ার ঘটনা বিস্মিত করেছে সবাইকে। এখন প্রশ্ন উঠছে এটি কি নিছক দুর্ঘটনা না কি এর পিছনে নাশকতা রয়েছে।

ভারতের ভিভিআইপি হেলিকপ্টারের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়েও বিতর্ক দানা বেঁধে উঠেছে।

এই সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন জেনারেল রাওয়াতের স্ত্রী মধুলিকা। দেশটির সেনা ও বিমানবাহিনীর কর্মকর্তা মিলিয়ে আরও ১২ জন এই ঘটনায় মারা গিয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে রয়েছেন সিডিএসের ৫ নিরাপত্তারক্ষী। ১ জন ডিএ এবং ১ জন এসও।

এ দুর্ঘটনায় আহত ১ মাত্র গ্রুপ ক্যাপ্টেন বরুণ সিংকে কার্যত আধপোড়া অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনার উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

জেনারেল রাওয়াতের উত্তরসূরি ঠিক করার ব্যাপারে রাতেই মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকে আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সূত্রের সংবাদ হচ্ছে, ভারতের নতুন সেনা সর্বাধিনায়ক হওয়ার তালিকায় ভেসে উঠছে বর্তমান সেনা প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানের নাম।

দক্ষিণের পর্যটন কেন্দ্র উটি লাগোয়া পাহাড়ি উপত্যকা ওয়েলিংটন। রয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর একটি কলেজ।

এদিন কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই দিল্লি থেকে সস্ত্রীক রওনা হয়েছিলেন প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াত। সকাল ন’টায় দিল্লি থেকে তামিলনাড়ুর বিমানবাহিনীর ঘাঁটি সলুরের দিকে উড়ে যায় তার বিশেষ বিমান।

সেখান থেকে ১০ মিনিটের মধ্যেই বিপিন রাওয়াত-সহ ১৪ জনকে নিয়ে ওয়েলিংটন উপত্যকার দিকে রওনা হয় ভারতীয় বিমানবাহিনীর অত্যাধুনিক রুশ হেলিকপ্টার এমআই-সেভেনটিন ভি ফাইভ কপ্টার।

ঘড়ির কাঁটায় তখন বেলা সাড়ে ১২টা। জঙ্গলের মধ্যে থেকে একটা বিকট আওয়াজ শুনতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। দেখতে পান জঙ্গলের মাঝামাঝি জায়গা থেকে কুণ্ডলী পাকিয়ে বেরিয়ে আসছে কালো ধোঁয়া।

ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা দেখেন দুমড়ে মুচড়ে পড়ে রয়েছে ভারতীয় বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার।

তারাই প্রথমে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। স্থানীয়দের থেকে জানা যায়, সুলুর থেকে ওয়েলিংটন যাওয়ার পথে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের কপ্টার।

বেলা দুটোর খানিক আগে তামিলনাড়ুতে সামরিক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা নিয়ে প্রথম টুইট করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। রাওয়াতের কপ্টার দুর্ঘটনার খবর টুইটে স্বীকার করা হয়।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই টুইটে রাজধানীর বিভিন্ন মহলে উদ্বেগের স্রোত বইতে থাকে।

কেমন আছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ? তিনি জীবিত না মৃত?

প্রায় ঘন ঘনই প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনা শুরু করেন তিনি।

মন্ত্রিপর্যায়ের এই তৎপরতার মধ্যেই নর্থ ও সাউথ ব্লকের বিভিন্ন অলিন্দে রুশ হেলিকপ্টার অত্যাধুনিক এমআই-সেভেনটিন ভি ফাইভের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। প্রশ্ন ওঠে কী ভাবে এই ঘটনা তা নিয়েও।

এই আশঙ্কার মধ্যেই সন্ধে ৬ টার খানিক পরেই বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুসংবাদ দেশবাসীকে জানায় ভারতীয় সেনাবাহিনী।

নতুন করে টুইট করে বলা হয়, “নীলগিরি পাহাড়ে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিত রাওয়াত। দুর্ঘটনায় চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের স্ত্রী মধুলিকার মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়াও হেলিকপ্টারে থাকা ১৪ জনের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন।”

এই ঘোষণার পরেই টুইটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শোকবার্তা, “তামিলনাড়ুতে ভারতীয় সামরিক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার খবরে আমি মর্মাহত।

এই ঘটনায় আমরা বিপিন রাওয়াতের মতো এক সেনানীকে হারালাম।

ভারতীয় সেনাকে সর্বোচ্চ চূড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন জেনারেল রাওয়াত। এই অবদান কোনও দিন ভোলা সম্ভব নয়।”

ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রথম সর্বাধিনায়কের মৃত্যুতে গভীরভাবে মর্মাহত প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। “ভারতীয় সেনার সংসারে জেনারেল রাওয়াতের মৃত্যু অপূর্ণ ক্ষতি।” টুইটে প্রতিক্রিয়া রাজনাথের।

শোক প্রতিক্রিয়ায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান, “তামিলনাড়ুর হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় আমরা ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক সেরা নায়ককে হারালাম। নিজের অধ্যবসায়ে উনি ভারতীয় সেনাকে সর্বোচ্চ চূড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন।”

শোকপ্রকাশ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। মমতার টুইট, “চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার খবরে আমি মর্মাহত। তার মৃত্যু দেশের কাছে অপূরণীয় ক্ষতি। আমরা সব সময় ওর সাহসকে মনে রাখব।”

ইতিমধ্যেই তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

আজ বৃহস্পতিবার ( ৯ ডিসেম্বর) নীলগিরির জঙ্গলে ঘটনাস্থলে যাচ্ছে সেনার বিশেষ তদন্তকারী দল।

হরিয়ানা এবং পুণে থেকে ডাকা হয়েছে কেন্দ্রীয় ফরেনসিক কর্তাদের। প্রস্তুত রাখা হয়েছে এনআইএকে।

দুর্ঘটনার তদন্তে সেনাকে সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। প্রাথমিকভাবে সেনাবাহিনী মনে করছে, খারাপ আবহাওয়ার জন্য এই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

কারণ পাহাড়ি ওই এলাকায় গত কয়েকদিন ধরেই বৃষ্টি হচ্ছিল। একই সঙ্গে হেলিকপ্টারের জরুরি অবতরণের বিষয়টিকেও উড়িয়ে দেয়া হচ্ছে না।

সেনাবাহিনীর দাবি, আকাশে ওড়ার ১০ মিনিটে মধ্যে হয়তো হেলিকপ্টারে কোনও প্রযুক্তিগত ক্রটি ধরা পড়তে পারে।

এই ব্যাপারে ডিজিটাল অ্যানালিসিস না করা পর্যন্ত কোনও উত্তর দেওয়া সম্ভব নয় বলেই দাবি ভারতীয় সেনাবাহিনীর।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ভারতের তিন সেনাকে এক সুতোয় আনতে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের পদ তৈরি করেছিল মোদি সরকার।

প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক হিসাবে ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি দায়িত্ব নেন গোখা রাইফেলস থেকে সেনা জীবন শুরু করা বিপিন রাওয়াত।

এই দেড় বছরে নিজের জীবন দর্শনে ভারতীয় সেনাকে আরও গতি দিতে চেয়েছিলেন রাওয়াত।

গত বুধবার ( ৮ ডিসেম্বর) পাহাড় ঘেরা নীলগিরির জঙ্গলে সব অতীত হয়ে গেল।

আজ বৃহস্পতিবার ( ৯ ডিসেম্বর) তামিলনাড়ু থেকে দিল্লি আসছে বিপিন রাওয়াত ও তাঁর স্ত্রীর দেহ। শুক্রবার পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় তাঁদের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। সূত্র: টাইমস নাউ।

এইচএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *