বুধবার ৭, ডিসেম্বর ২০২২
EN

৫ কৃষককে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের

কক্সবাজারের টেকনাফের পাহাড়ি এলাকা থেকে পাঁচ কৃষককে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করেছে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। এর মধ্যে আহত অবস্থায় তিন কৃষককে উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের পানখালী ও মরিচ্যাঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অপহৃতরা হলেন- হ্নীলা ইউনিয়নের পানখালীর মৃত উলা মিয়ার ছেলে নজির আহমদ (৫০), নজির আহমদের ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (২৭), স্থানীয় আবুল মঞ্জুরের ছেলে মো. শাহজাহান (৩৫), ঠান্ডা মিয়ার ছেলে আবু বক্কর (৪০) ও আবু বক্করের শিশুপুত্র মেহেদী হাসান (১২)।

হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মোহাম্মদ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল আমার এলাকার পাঁচজন কৃষককে পাহাড়ি এলাকা থেকে অপহরণ করে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। এর মধ্যে তিনজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তারা বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আর বাকী দুইজনের এখনো খোঁজ মেলেনি। একটি মুঠোফোন নম্বর থেকে কল করে মুক্তিপণ হিসেবে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করা হলেও নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। 

তিনি আরও জানান, পাঁচজনের প্রত্যেকের পরিবারে ফোন করে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। টাকা না পেয়ে তারা কৃষক শাহজাহানকে গুলি করে। এ ছাড়া আবু বক্কর ও মেহেদী হাসানকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে অপহরণকারীরা। পরে ওই কৃষকদের স্বজনরা দলবেঁধে ঘটনাস্থলের দিকে গেলে আহত তিনজনকে ফেলে সন্ত্রাসীরা নজির আহমদ ও তার ছেলে মোহাম্মদ হোসেনকে অস্ত্রের মুখে পাহাড়ের ভেতরের দিকে ধরে নিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মো. শাহজাহান, আবু বক্কর ও মেহেদী হাসানকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। 

টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছ থেকে বিষয়টি শুনেছি। এ নিয়ে পুলিশ কাজ করছে।

এমআই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *